• বুধবার   ২৮ জুলাই ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১২ ১৪২৮

  • || ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

পিরোজপুর সংবাদ

অকালে চুলপাকা কমায় বহেড়া

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১২ নভেম্বর ২০২০  

চুলকে নানা রঙে রাঙানো বর্তমানে এক ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে। তবে পাকা চুল কালো করার জন্য অনেকেই কলপ বা কৃত্রিম রঙে ভরসা রাখেন।

এসব কেমিকেলযুক্ত হেয়ার কালার চুলের জন্য বেশ ক্ষতিকর। বেশিরভাগ কেমিকেলযুক্ত রঙেই অ্যামোনিয়া থাকে। তা থেকে অ্যালার্জি হতে পারে মাথার ত্বকে, বেশিদিন ব্যবহার করলে চুলের অবস্থা আরো খারাপ হতে থাকে। 

এমন অনেকেই আছেন, যাদের চুল অল্প বয়স থেকেই পাকতে শুরু করে। দূষণ, স্ট্রেস, অযত্ন, ভুল ডায়েট বা স্বাস্থ্যহানির কারণে এসব হয়। তারাও এমন কিছুর সন্ধানে থাকেন যা নিশ্চিন্তে ব্যবহার করা যাবে। 

প্রাকৃতিক হেয়ার ডাই সবারই কাজে লাগে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক কীভাবে বহেড়ার তেল ব্যবহার করে সাদা চুল কালো করা যায় সে সম্পর্কে- 

> শরীরের কোনো স্থানে ফুলে গেলে বহেড়ার বীজ বাদ দিয়ে শুধু ছাল বেটে একটু গরম করে ফুলো জায়গায় প্রলেপ দিলে ফুলো কমে যায়।

> বহেড়ার বীজ বাদ দিয়ে শাঁস গুঁড়া করে ডালিম পাতার রসের সঙ্গে মিশিয়ে টানা কয়েকদিন খেলে কৃমি দূর হয়।

 

ছবি: বহেড়া

ছবি: বহেড়া

> বহেড়ার বীজের মধ্যে থাকা শাঁসের তেল বের করে নিয়মিত শ্বেতীর ওপর লাগালে গায়ের রং কিছুদিনের মধ্যেই স্বাভাবিক হয়ে যায়।

> গরম ঘিয়ে বহেড়ার গুঁড়া মিশিয়ে গরম করে খেলে ঠান্ডা,কাশি নিরাময় হয়। বিশেষ করে আধা চা চামচ বহেড়া-চূর্ণ ও ঘি একসঙ্গে গরম করে তার সঙ্গে মধু মিশিয়ে চেটে খেলে কাশি উপশম হয়।

> বহেড়া ফলের বীজ বাদ দিয়ে শুধু খোসা নিয়ে পানি দিয়ে ভালোভাবে মসৃণ করে বেটে নিন। তারপর এক কাপ পানিতে মিশিয়ে সেই পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এভাবে নিয়মিত কিছুদিন করলে চুল ওঠা বন্ধ হবে এবং পাকা চুল কালো হবে।

> বহেড়ার বীজের শাঁস সামান্য পানিতে খুব মিহি করে বেটে চন্দনের মতো টানা কয়েক মাস টাকে লাগালে টাক সেরে যায়।