বৃহস্পতিবার   ১২ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৮ ১৪২৬   ১৪ রবিউস সানি ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
ঘুষ-দুর্নীতির বিরুদ্ধে সজাগ থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ভান্ডারিয়ায় ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস উপলক্ষে র‌্যালী অনুষ্ঠিত মঠবাড়িয়ায় ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস উপলক্ষ্যে র‌্যালী ও আলোচনা সভা ভারতের উদ্যোক্তাদের বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারে দায়িত্বশীল হতে হবে: স্পিকার তৃতীয় টার্মিনাল নির্মাণ হলে সেবা পাবে আরও ১২ মিলিয়ন যাত্রী মালিকের গাফিলতিতে কেরানীগঞ্জে অগ্নিকাণ্ড: স্বাস্থ্যমন্ত্রী শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানালেন ট্রাইব্যুনাল রূপপুর বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে দেশ নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ পাবে ৬০ বছর বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন: ড. কামাল-রীভা গাঙ্গুলির বৈঠক

অভিবাসন নিয়ে সচেতন হওয়ার আহ্বান তথ্য প্রতিমন্ত্রীর

প্রকাশিত: ২ ডিসেম্বর ২০১৯  


 অভিবাসন নিয়ে সচেতনতার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী ড. মুরাদ হাসান। 
সোমবার (০২ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরসি মজুমদার মিলনায়তনে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ আহ্বান জানান। দুই দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে জাতিসংঘের অভিবাসন সংস্থা আইওএম। আন্তর্জাতিক এই চলচ্চিত্র উৎসবে যৌথভাবে সহযোগিতা করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও ঢাবি চলচ্চিত্র সংসদ।
প্রথম দিনের সমাপনী অধিবেশনে বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় টেলিভিশন, ফিল্ম এবং ফটোগ্রাফি বিভাগের অধ্যাপক ড. শফিউল আলম ভূঁইয়া, আইওএম’র ডেপুটি চিফ অব মিশন এমরাহ গুলার, চলচ্চিত্র অভিনেতা ফজলুর রহমান বাবু, ব্র্যাকের হেড অব মাইগ্রেশন প্রোগ্রাম শরিফুল হাসান এবং লেখক ও চলচ্চিত্র নির্মাতা সাদাত হোসাইন।
অনুষ্ঠানে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ড. মুরাদ হাসান বলেন, অভিবাসন শব্দটি পীড়াদায়ক। শুধু বাংলাদেশেই নয় সমগ্র বিশ্বে এটি একটি বড় সমস্যায় রূপ নিয়েছে। অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব কলহ সন্ত্রাসের কারণে যার মাত্রা মুসলিম দেশগুলোতে ব্যাপক। আমরা যখন মিয়ানমার সরকারের জাতিগত বিদ্বেষের ভয়াবহতা দেখি তখন অভিবাসনের বাস্তব চিত্র আমাদের সামনে স্পষ্ট হয়ে ওঠে। তাই এই সমস্যা নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণ প্রশংসনীয় উদ্যোগ।
শিক্ষার্থীদের লক্ষ্য করে তিনি বলেন, তোমাদের আত্মীয়-স্বজন ও প্রতিবেশী কেউ না কেউ বিভিন্ন মাধ্যমে বিদেশে যেতে চাইছে কর্মের সন্ধানে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হিসাবে তোমাদের দায়িত্ব হবে তাদেরকে অভিবাসনের বিষয়ে সচেতন করে তোলা।
চলচ্চিত্র অভিনেতা ফজলুর রহমান বাবু বলেন, চলচ্চিত্র সমাজ ও সংস্কৃতির দর্পণ হিসাবে কাজ করে। তাই চলচ্চিত্রকর্মী হিসাবে আমাদের দায়িত্ব সমাজের বাস্তবচিত্র মানুষের কাছে তুলে ধরা। এক্ষেত্রে বর্তমান বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে অভিবাসন নিয়ে নির্মিত চলচ্চিত্র খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

এই বিভাগের আরো খবর