সোমবার   ১৮ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৪ ১৪২৬   ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
৩৮৮

আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে জমকালো সাজে সাজবে দেশ

প্রকাশিত: ১৯ জুন ২০১৯  

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে টানা তিন মেয়াদে সরকার গঠন করে ফুরফুরে মেজাজে রয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। তাই আসন্ন ৭০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আয়োজন বেশ জমকালোভাবে করতে যাচ্ছে তারা। দেশব্যাপী নানা আয়োজনের পাশাপাশি থাকছে জমকালো আলোকসজ্জা। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজন সফল করতে এরই মধ্যে কেন্দ্র থেকে তৃণমূলে বার্তা পাঠানো হয়েছে।

আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আয়োজনকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যে মাসব্যাপী কর্মসূচির ঘোষাণা করা হয়েছে। ২৩ জুন থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, সভা-সমাবেশ, সেমিনার ও র‌্যালি, আলোচনা সভা, পুস্তিকা প্রকাশ, রচনা প্রতিযোগিতা, চিত্রাঙ্কন। এছাড়া প্রতি জেলা থেকে ২ জন ত্যাগী ও প্রবীন নেতাকে দেয়া হবে সংবর্ধনা।

আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে, আওয়ামী লীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়, বিভিন্ন মহানগরসহ সকল সাংগঠনিক জেলা ও উপজেলা ও ইউনিয়ন কার্যালয়সহ সারাদেশের কার্যালয়গুলো সাজানোর পরিকল্পনা রয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন ইউনিটের সংশ্লিষ্ট এলাকায় ব্যানার-ফেস্টুন, লাইটিং এবং অন্যান্য আলোকসজ্জায় সজ্জার ব্যবস্থা করা হবে। দলের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীকে নেতাকর্মীদের মধ্যে স্মরণীয় করে রাখতেই এমন দৃষ্টি নন্দন সাজ-সজ্জা করা হচ্ছে।

এছাড়া রাজধানী ঢাকায় তিন দিনব্যাপী কর্মসূচি নেয়া হয়েছে। ঢাকায় কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিন ২৩ জুন সকালে বঙ্গবন্ধু ভবন ও কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন। এরপর আওয়ামী লীগ সভাপতির প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানাবেন দলের কেন্দ্রীয় নেতারা। ২৪ জুন বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনে কেন্দ্রে আলোচনাসভা ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান ও ২৫ জুন বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে কেন্দ্রীয় কার্যালয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে।

আওয়ামী লীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজন উপলক্ষ্যে দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান বলেন, এবারের আয়োজনটাকে আমরা স্মরনীয় করে রাখতে চাই। এ লক্ষ্যে আমরা তৃণমূলে নির্দেশনা পাঠিয়েছি। তৃণমূল থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত সকল কার্যালয় ওই দিন নতুন রূপে সাজবে। তাছাড়া দলের সহযোগী ও অঙ্গ সংগঠনও এদিন মাঠে থাকবে।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এরই মধ্যে প্রথমিক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শাহে আলম মুরাদ তিনি বলেন, এরই মধ্যে প্রাথমিক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালনে মনোমুগ্ধকর সাজ-সজ্জার সকল আয়োজন ইতিমধ্যে সম্পন্ন করা হচ্ছে। আমাদের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রতিটি থানা-ওয়ার্ড নেতারা কার্যক্রম শুরু করে দিয়েছে। অতীত ঐতিহ্য ধারণ করে দলীয় কার্যালয়সহ বিভিন্ন স্থানে আলোকসজ্জার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, ঢাকা দক্ষিন সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে আগামী ২৩জুন রোববার বিকেল ৩টায় রোজ গার্ডেনে দলের ইতিহাস-ঐতিহ্যের প্রর্দশনীর আয়োজন করা হচ্ছে। এরপর রাত ১০টা পর্যন্ত থাকবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

এ বিষয়ে ফরিদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী আশরাফুল কবীর জানান, আমরা কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ শুরু করেছি। ইতিমধ্যে বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে নির্দেশণা অনুযায়ী এখন থেকেই সাজ সজ্জা শুরু হয়েছে। আওয়ামী লীগের পাশাপাশি সহযোগী ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরাও প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ব্যানার ফেস্টুন ও প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন।

১৯৪৯ সালের ২৩ জুন পুরান ঢাকার রোজ গার্ডেনে দলটি প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠাকালীন এর নাম ছিল আওয়ামী মুসলিম লীগ। পরবর্তী সময়ে নাম থেকে মুসলিম শব্দটি বাদ দিয়ে নাম হয় আওয়ামী লীগ। প্রতিষ্ঠার পর ’৫২-এর ভাষা আন্দোলন, ’৫৪-এর নির্বাচন, আইয়ুবের সামরিক শাসনবিরোধী আন্দোলন, ’৬৬-এর ছয় দফা আন্দোলন, ’৬৯-এর গণ-অভ্যুত্থান ও ’৭১-এর মুক্তিযুদ্ধে দলটি নেতৃত্ব দেয়। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করা হয়। ৩ নভেম্বর ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে হত্যা করা হয় জাতীয় চার নেতাকে। ১৯৮১ সালে দেশে ফিরে আওয়ামী লীগের হাল ধরেন শেখ হাসিনা। বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রামে নেতৃত্ব দেওয়া দলটি ১৯৯৬ সালের সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে ক্ষমতায় ফিরে আসে। এরপর ২০০৮, ২০১৪ এবং ১০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনে জয়ী হয়ে দলটি টানা তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় রয়েছে।

রোজ গার্ডেনে আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠার পর কয়েকবার কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের জায়গা বদল করে আওয়ামী লীগ। এরপর বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ১৯৮১ সালে দলের সভাপতি হয়ে দেশে ফিরলে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলীয় কার্যালয় স্থাপন করা হয়। গতবছর দলের ৬৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে ১০তলা নিজস্ব ভবন বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের উদ্বোধন করেন দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এই বিভাগের আরো খবর