রোববার   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬   ১০ রবিউস সানি ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ

আন্তর্জাতিক পুরুষ দিবস কাল

প্রকাশিত: ১৮ নভেম্বর ২০১৯  

 

 

 

কাজী নজরুল ইসলামের কথায়, ‘বিশ্বে যা কিছু মহান সৃষ্টি চিরকল্যাণকর, অর্ধেক তার করিয়াছে নারী, অর্ধেক তার নর’। আট মার্চ নারীর জন্য আলাদা একটি দিন হিসেবে পালন করা নিয়ে তর্ক নতুন কিছু নয়। অনেকে নারী দিবস পালনকে খুব গুরুত্বপূর্ণ মনে করেন। আবার অনেকে বলেন পুরুষের জন্য কোনো আলাদা দিবস নেই, তাহলে নারীর জন্য আলাদা দিবস কেন- এই তর্কও জুড়ে দেন। কিন্তু সবারই জানা উচিত, পুরুষদের জন্যও একটি বিশেষ দিন আছে। আর সেটা ১৯ নভেম্বর।

বিশ্বব্যাপী পুরুষদের মধ্যে লিঙ্গভিত্তিক সমতা, বালক ও পুরুষদের সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করা এবং পুরুষের ইতিবাচক ভাবমূর্তি তুলে ধরতেই আন্তর্জাতিক পুরুষ দিবস উদযাপিত হয়। প্রতি বছর ১৯ নভেম্বর বিশ্বের ৭০টিরও বেশি দেশে পালন করা হয় দিবসটি। এই দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, চীন, কানাডা, ভারত, পাকিস্তান, ক্রোয়েশিয়া, জ্যামাইকা, কিউবা, স্কটল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, মাল্টা, কানাডা, ডেনমার্ক, নরওয়ে, অস্ট্রিয়া, ইউক্রেন ইত্যাদি। বাংলাদেশেও এ দিবসটি পালিত হয়েছে।

অনেকেই মনে করেন, নারী দিবসের বিকল্প হিসেবেই পুরুষ দিবসের আয়োজন। এ কথা সত্য নয়। বরং পুরুষের সুস্বাস্থ্য ও নির্যাতন সম্পর্কে সবাইকে সচেতন করতেই এ দিবসের আয়োজন। দিবসটি পালনের জোর দাবি ওঠে পুরুষ দিবস পালনের। তখন অবশ্য ৮ মার্চের নারী দিবসের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এর আগে ২৩ ফেব্রুয়ারি পালন করা হতো পুরুষ দিবস।

১৯২২ সাল থেকে তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নে ‘রেড আর্মি অ্যান্ড নেভি ডে’ পালন করা হতো। পুরুষদের বীরত্ব আর ত্যাগের প্রতি সম্মান জানিয়েই মূলত এই দিবস। নব্বই দশকের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া ও মাল্টায় কয়েকটি প্রতিষ্ঠান ফেব্রুয়ারিতে পুরুষ দিবস পালনের জন্য বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। পরবর্তী সময়ে ১৯ নভেম্বর বিশ্বব্যাপী পুরুষ দিবস পালনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এই বিভাগের আরো খবর