• বৃহস্পতিবার   ০১ অক্টোবর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ১৫ ১৪২৭

  • || ১৩ সফর ১৪৪২

পিরোজপুর সংবাদ
১২৬

আসল ইলিশ চেনার উপায়

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২৩ জুলাই ২০২০  

চলছে মৎস্য সপ্তাহ ২০২০(২১-২৭ জুলাই। কথায়ই রয়েছে মাছে-ভাতে বাঙালি।

মাছ ছাড়া একটা দিনও খাওয়া প্রায় অসম্ভব হয়ে যায় আমাদের জন্য। মাছে খেয়েই পাওয়া যায় পুষ্টি ও তৃপ্তি।  

আমাদের রয়েছে চিংড়ি, শোল, গজার, কই, শিং, মাগুর, পুঁটি, পাবদা, টেংরা, বাইলা, টাকি, বাইম, বাঁশপাতা, রুই, কাতল, মৃগেল, ফলি, সরপুঁটি, বোয়াল, ভেটকিসহ হাজারো প্রজাতির মাছ। কারো পছন্দ ছোট মাছ, কারো বা বড় পাঙ্গাশ-বোয়াল।  

এতো মাছের নাম বলা হলেও এখনো সেরা স্বাদের ইলিশের কথাই বলা হয়নি। সব মাছের সেরা, সবার পছন্দের তালিকায় প্রথমেই যে মাছের নামটি আসে তা তো মাছের রাজা ইলিশই হবে। আমরা ভাগ্যবান যে আমাদের এখানেই রয়েছে এই চমৎকার স্বাদের মাছটি। ভাজা, ভুনা, ঝোল, ভাত, খিচুড়ি বা পোলাওয়ের সঙ্গে সব ভাবেই খাওয়া যায় এই প্রিয় মাছ।  

বর্ষা মৌসুম চলছে, এখনই বাজারে পাওয়া যাচ্ছে নদীর ইলিশ। তবে সারা বছরই বাজারে কম বেশি ইলিশ পাওয়া যায়। ইলিশের স্বাদ নির্ভর করে এলাকার ওপর। যেমন পদ্মার ইলিশের চেয়ে স্বাদে ভিন্ন বরিশালের ইলিশ।  
ইলিশ শুধু স্বাদের জন্যই সেরা নয়, এর পুষ্টিগুণও রয়েছে প্রচুর। এতে ভিটামিন, ফসফরাস, ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম আয়রন ও সেলেনিয়ামের গৌণ খনিজ লবণ রয়েছে। এছাড়া ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিডের প্রাকৃতিক উৎস্য যা হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়।  
ইলিশ কেনার সময় ভালোমানের দেশি ইলিশ চিনে কিনতে হবে। নয়ত ইলিশের স্বাদ যেমন পাওয়া যাবে না, তেমনি টাকাগুলোও নষ্ট হবে।  
কারণ বাজারে ঠিক ইলিশের মতো দেখতে সার্ডিন মাছও পাওয়া যায় অনেক সময়। অসাধু ব্যবসায়ীরা এগুলো ইলিশ বলেই বিক্রি করে। এজন্য হতে হবে সচেতন, চিনতে হবে রুপালি মাছের আসল রাজাকে। তবেই পাওয়া যাবে রাজকীয় স্বাদ।  

সার্ডিন মাছ জেলেদের কাছে পরিচিতি চন্দনা, যাত্রিক, টাকিয়া, পানসা, খায়রা ও সাগর চাপিলা নামে। কিন্তু শহরে এনে অসাধু ব্যবসায়ীরা সার্ডিন বা চন্দনা মাছকে ইলিশ বলেই বিক্রি করে।  

জেনে নিন সার্ডিন ও আসল ইলিশ চেনার উপায়: 
•    সার্ডিন বা চন্দনা ইলিশের দেহের দৈর্ঘ্য সাত সেন্টিমিটার থেকে বিশ সেন্টিমিটার পর্যন্ত হয়ে থাকে। ইলিশ বেশ বড় (৭৫ সেন্টিমিটার পর্যন্ত) হয়ে থাকে।

•    সার্ডিনের মাথার আকৃতি ছোট ও অগ্রভাগ ভোতা। ইলিশের মাথার আকৃতি লম্বাটে ও অগ্রভাগ সূচালো।

•    সার্ডিনের পৃষ্ঠীয় পাখনার অগ্রভাগে এবং পুচ্ছ পাখনার কিনারা ঘোলাটে। ইলিশের পৃষ্ঠীয় পাখনার অগ্রভাগে এবং পুচ্ছ পাখনার কিনারা অনেটা সাদাটে

•    সার্ডিনের চোখের আকৃতি তুলনামূলকভাবে বড়। আসল ইলিশের চোখের আকৃতি তুলনামূলকভাবে ছোট

•    সার্ডিনের পৃষ্ঠীয় পাখনার উৎসে একটি কালো ফোঁটা রয়েছে। আসল ইলিশের কানকুয়ার পরে একটি বড় কালো ফোঁটা এবং পরে অনেকগুলো কালো ফোঁটা (a series of small spots) থাকে।

তথ্য সূত্র: (জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রকাশিত গ্রন্থ, পৃষ্ঠ-৭৯ থেকে ৮২)
বেশি বেশি দেশি মাছ খান, শরিরের পুষ্টি ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ান।  

লাইফস্টাইল বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর