• মঙ্গলবার   ০৭ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৪ ১৪২৬

  • || ১৩ শা'বান ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
যারা সাহায্য চাইতে পারবে না তাদের তালিকা করতে বললেন প্রধানমন্ত্রী চিকিৎসকরা কেন চিকিৎসা দেবে না, এটা খুব দুঃখজনক : প্রধানমন্ত্রী দীর্ঘদিন জেলখাটা আসামিদের মুক্তির নীতিমালা করার নির্দেশ প্রণোদনা প্যাকেজ বাস্তবায়ন হলে অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াবে: অর্থমন্ত্রী করোনা: ৭৩ হাজার কোটি টাকার আর্থিক সহায়তা প্যাকেজ ঘোষণা বেসরকারি হাসপাতাল চিকিৎসা না দিলেই ব্যবস্থা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রতি উপজেলা থেকে নমুনা সংগ্রহ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর আজ থেকে কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে সেনাবাহিনী মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে সমালোচনা করছে বিএনপি : কাদের দেশে আক্রান্তদের মধ্যে এ পর্যন্ত ২৬ জন সুস্থ : স্বাস্থ্যমন্ত্রী
২২

ইউএনও`র হস্তক্ষেপে বাল্যবিবাহ পণ্ড, কনের বাবাকে জরিমানা

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলায় ইউএনও'র হস্তক্ষেপে পণ্ড হলো বাল্যবিবাহ। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটেছে উপজেলার হাটিলা পশ্চিম ইউনিয়নের টঙ্গিরপাড় নোয়াপাড়া গ্রামে। 

জানা গেছে, কনে পাশের শাহরাস্তি উপজেলার ইছাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী। মেয়েটির টিকা কার্ড ও পঞ্চম শ্রেণি পাশের সার্টিফিকেট পরখ করে দেখা যায় ১৮ বছর পূর্ণ হতে এখনো তার অনেক সময় বাকী। এর পরও মেয়েকে বিয়ে দেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল তার পরিবার। কিন্তু খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে বিয়ে ভেঙ্গে দেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বৈশাখী বড়ুয়া। 

এদিকে ইউএনও যাওয়ার পরেই স্কুল ছাত্রীটি বাবা-মা বাড়ি থেকে সটকে পড়ে। পরে তাঁর নির্দেশে বিয়ে বাড়ির অতিথিদের জন্য রান্না করা সকল খাবার পাশের গ্রাম লাওকরা হযরত আমানত শাহ ও শাহেনশাহ (রহ:) হাফিজিয়া মাদ্রাসায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়। সেইসঙ্গে মেয়েটিকে একজন নারী চৌকিদারের মাধ্যমে নিজ গাড়িতে করে উপজেলায় নিয়ে আসেন ইউএনও বৈশাখী বড়ুয়া। পরে মেয়েটির পরিবারের লোকজন উপজেলা সদরে আসলে সেখানেই ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ছাত্রীর বাবাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ইউএনও। এর পাশাপাশি ১৮ বছরের আগে মেয়েকে বিয়ে দিবেন না এমন শর্তে মুচলেকা আদায় করে বাবার জিন্মায় মেয়েটিকে বুঝিয়ে দেন তিনি।

আদালত পরিচালনাকালে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জলিলুর রহমান মির্জা দুলাল, থানা উপ-পরিদর্শক (এসআই) রমিজ উদ্দিনসহ অন্যান্য সরকারি কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট বৈশাখী বড়ুয়া বলেন, ছাত্রীর বাবা দোষ স্বীকার করেন এবং ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত মেয়েকে বিয়ে না দেওয়ার অঙ্গীকার করে মুচলেকা শেষে ছাত্রীটিকে তার বাবার কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হয়।

জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর