বুধবার   ২৩ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৭ ১৪২৬   ২৩ সফর ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
৭১৫

কবর দেয়ার ১৬ দিন পর কবরের উপরে মহিলার লাশ,আলোচনার ঝড়

প্রকাশিত: ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

 

নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার ঘোলাদিঘী গ্রামে এক মহিলার মৃ’ত্যুর ১৬দিন পর অলৌকিক ভাবে তার লা’শ কবর হতে ডান পাশের কবরে পড়ে থাকতে দেখা গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দিবাগত রাতের কোন এক সময়ে। মঙ্গলবার সকালে কবরের পাশে ওই মহিলার লা’শ পড়ে থাকতে দেখে গ্রামের মধ্যে হৈচৈ পড়ে যায় এবং হাজার হাজার উৎসুক জনতা লা’শটি দেখতে গ্রামের ওই কবর স্থানে ভিড় জমায়।

গ্রামবাসী ও অসংখ্য প্রত্যক্ষ দর্শীদের বর্ণনা মতে জানা যায় ওই গ্রামের আব্দুল লতিফ এর স্ত্রী ৫ছেলে সন্তানের জননী মিলিয়ারা বেগম (৫০) ১সেপ্টেম্বর রবিবারে তার নিজ বাসায় মৃ’ত্যু বরণ করেন। মুসলিম সারা শরিয়্যাত মতে ২ সেপ্টেম্বর সোমবার সকাল ১০টার দিকে গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে তার লা’শ দাফন করা হয়। মহিলাকে কবরস্থ করার ১২দিনের মাথায় ১৩সেপ্টম্বর সকাল বেলায় তার কবরের উপরে একটি সুড়ঙ্গ দিয়ে ওই মহিলার একটি হাত বেরিয়ে কবরের উপর দন্ডায়মান অবস্থায় ও পাশে কাফনের কাপড় পড়ে থাকতে দেখে গ্রামবাসী। এর পর তার পরিবারের লোকজন স্থানীয় মৌলভী ডেকে দোয়া কালিমা পড়ে কবর হতে বেরানো হাত ও কাফনের কাপড়গুলি পুনরায় কবরের মধ্যে প্রবেশ কারিয় দিয়ে সুড়ঙ্গটি বন্ধ করে দেয়।

ঘটনা ক্রমে রহস্য জনক ভাবে ১৭সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকালে গ্রামের লোকজন কবর স্থানের দিকে গেলে তার কবরের পাশে ওই মহিলার উ’লঙ্গ বি’বস্ত্র লা’শটি পড়ে থাকতে দেখতে পায়। এর পর ঘটনাটি জানাজানি হলে হাজার হাজার উৎসুক জনতা এক নজর দেখতে ওই কবর স্থানে ভিড় জমায়। ক্রমেই জনতার উপস্থিতি বাড়তে থাকায় ওই মহিলার পরিবারের লোকজন তড়ি ঘড়ি করে কবরের পাশেই গর্ত না করেই মাটির উপর অন্যত্র হতে মাটি কেটে লাশটিকে মাটি চাপা দিয়ে ঢেকে দেয়া হয়। সৃষ্ট ঘটনাকে অনেইে বলছে এটি কোন শেয়াল কুকুরের ব্যাপার হতে পারে আবার লা’শটি যেহেতু অক্ষত তাই অনেকেই এটিকে দৈবাৎ ও কাকতালীয় বিষয় বলেও মন্তব্য করেছেন। গ্রামবাসী ও মৃত মিলিয়ারা বেগমের পরিবারের লোকজন ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। একই কবর হতে লা’শের হাত, কাফনের কাপড় এবং শেষে লা’শ বেরিয়ে পড়ে থাকার।

ওই গ্রামের প্রবীণ ব্যক্তি আব্দুর রইচ বলেন ১৬ দিন আগে মিলিয়ারা বেগম মারা যায় তারপর তাকে মাটি দেওয়ার প্রায় ১২ দিন পর লা’শের হাত ও কাফনের কাপড় কবরের উপরে দেখা যায় গ্রামের লোকজন ও মৌলভী দ্বারা দোয়া দরুদ করে কাফনের কাপড় ও হাত কবরে ঢুকে দেওয়া হয় আর আজ মঙ্গলবার ওই লাশের দেহটি কবরের পাশে পড়ে থাকতে দেখা যায় এবং মাটি দিখে লা’শটি ঢেকে দেওয়া হয়েছে।

এই বিভাগের আরো খবর