• সোমবার   ২৫ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪২৭

  • || ০২ শাওয়াল ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ

করোনার পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা অনুষ্ঠান করবে আ`লীগ

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১৯ মে ২০২০  

করোনা ভাইরাসের সংকট মোকাবেলায় সরকার ও আওয়ামী লীগের কর্মকান্ড এবং করোনা-পরবর্তী পরিস্থিতিতে সমাজ ও রাষ্ট্রের সকল পর্যায়ের করণীয় সম্বন্ধে ঠিক করতে একটি আলোচনা অনুষ্ঠান আয়োজনের উদ্যোগ নিয়েছে আওয়ামী লীগ। `Beyond The Pandemic’ শীর্ষক এই আলোচনা অনুষ্ঠানের প্রথম পর্ব ইতোমধ্যে গত ১৫ই মে দলটির অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে সরাসরি সম্প্রচারিত হয়েছে। যার বিষয় বস্তু ছিল ‘করোনা ভাইরাস মহামারী মোকাবেলায় জনসচেতনতা’।
অনুষ্ঠানে সাধারণ মানুষ সরাসরি তাদের প্রশ্নগুলো উপস্থিত ব্যক্তিবর্গের কাছে তুলে ধরেন এবং নিজেদের মতামত সরাসরি পৌঁছে দেওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন এই আয়োজনের মাধ্যমে।
আজ ১৯ মে মঙ্গলবার এই আয়োজনের দ্বিতীয় পর্ব অনুষ্ঠিত হবে। এই পর্বের বিষয় বস্তু নির্ধারণ করা হয়েছে ‘করোনা ভাইরাস সংকটে মানবিক সহায়তা’। ফেসবুকে সরাসরি এই আলোচনায় অংশ নিবেন শিক্ষামন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দিপু মনি এমপি। এছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া এবং স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের প্রতিনিধি শিপ্রা দাশ অংশ গ্রহণ করবেন।
এর আগে প্রথম পর্বের আলোচনায় অংশ নেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। আরো যুক্ত হয়েছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের প্রধান অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম, মানসিক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এডুকেশন অ্যান্ড কাউন্সেলিং সাইকোলজি বিভাগের অধ্যাপক মেহতাব খানম, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালক অধ্যাপক ডা. শাহনীলা ফেরদৌসী, একাত্তর টিভি’র সাংবাদিক ফারজানা রুপা, আন্তর্জাতিক বিজ্ঞাপন নির্মাতা সংস্থা গ্রেইন্টারন্যাশনাল এর ঢাকা অফিসের ম্যানেজিং পার্টনার এবং ক্রিয়েটিভ চীফ সৈয়দ গাউসুল আলম শাওন এবং অভিনেতা রিয়াজ আহমেদ। পাশাপাশি অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ১০ জন শিক্ষার্থী ও সাংবাদিক।
প্রথম পর্বের আলোচনায় তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বাংলাদেশ টেলিভিশনে আমরা বিভিন্ন সচেতনতা মূলক ভিডিও নির্মাণ করে প্রচার করি এবং বিভিন্ন ডাক্তারদের নিয়ে করোনা সচেতনতা মূলক অনুষ্ঠানের আয়োজন করি যা এখনো চলমান রয়েছে। বাংলাদেশ বেতারেও আমরা সমানতালে সচেতনতা মূলক অনুষ্ঠান প্রচার করেছি।
ডিজিটাল বাংলাদেশের কথা উল্লেখ করে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের কারনেই লকডাউনের মধ্যে সকল যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ থাকা স্বত্ত্বেও মানুষ ঘরে বসে স্বাস্থ্য সেবা, খাদ্য, আর্থিক সুবিধা পাচ্ছে।
অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনার দায়িতে রয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার শাহ আলি ফরহাদ।

রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর