• মঙ্গলবার   ২৬ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১১ ১৪২৭

  • || ০৩ শাওয়াল ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
৫২

করোনা ও ত্রাণ নিয়ে ফেসবুকে তারেকের নতুন মিথ্যাচার, সমালোচনার ঝড়

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২৩ মে ২০২০  

 


করোনা সংকটেও থেমে নেই বিএনপি নেতাদের মিথ্যাচার ও সরকারবিরোধী উসকানি। এতোদিন যুক্তরাষ্ট্র, সুইডেন ও যুক্তরাজ্যে অবস্থিত ‘গুজব সেল’ থেকে করোনা নিয়ে মিথ্যাচার করলেও এবার নিজেই ফেসবুক লাইভে এসে নতুন করে গুজব ছড়ালেন লন্ডনে পলাতক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

শুক্রবার (২২ মে) ফেসবুক লাইভে এসে করোনায় চিকিৎসা, সরকারের ত্রাণ তৎপরতা ও সরকারের প্রশংসনীয় সার্বিক কর্মকাণ্ড নিয়ে নতুন করে এই মিথ্যাচার করেন দুর্নীতির বরপুত্র।

তার ভাষ্য, ত্রাণ ও সুচিকিৎসার অভাবে মানুষ রাস্তাঘাটে মারা যাচ্ছে। কিন্তু প্রকৃত চিত্র হচ্ছে, সরকারের সুদক্ষ নেতৃত্বে করোনার এই সময়ে দেশের জনগণ স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন। কারণ, সরকারের পক্ষ থেকে নগদ অর্থ সহায়তা ও ত্রাণ তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। পাশাপাশি সরকারের কঠোর তদারকিতে চিকিৎসকদের সুচিকিৎসা পেয়েও খুশি সাধারণ মানুষ। তারা বলছেন, চিকিৎসকদের নিদারুণ আন্তরিকতার কারণেই করোনা আক্রান্তরা অল্পদিনেই করোনা জয় করে বাড়ি ফিরছেন।

মিথ্যাচার করে ফেসবুক লাইভে তারেক রহমান আরো বলেন, ছাত্রদল, কৃষকদল, যুবদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীরা অসহায় বর্গা চাষীদের ধান কেটে ঘরে তুলে দিচ্ছেন। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে, তারা ধান কাটার নামে ফটোসেশন, চাঁদাবাজি, চাঁদা না পেলে মারধর, ক্ষেতে বসে জুয়া খেলাসহ নানা অপকর্ম করছেন। ইতোমধ্যে সেসব খবর গণমাধ্যমেও প্রকাশিত হয়েছে।

এছাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে করোনা ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে বলেও তারেক বলেছেন, যা কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। কারণ, করোনা মোকাবিলায় সরকার এরই মধ্যে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সচেতনতা ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছে। পাশাপাশি তিনি তার লাইভে দেশব্যাপী লক্ষ লক্ষ মানুষকে ত্রাণ দেয়ার দাবি করলেও বাস্তবতা হচ্ছে, বিএনপির তরফ থেকে খুঁজে খুঁজে দলীয় কর্মীদের কেবল ত্রাণ দেয়া হয়েছে।

করোনা মোকাবিলায় সরকারের প্রশংসনীয় উদ্যোগ নিয়ে এমন ডাহা মিথ্যাচারিতা করায় তারেক রহমানের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। রমজান মাসেও গুজব ছড়ানোর দায়ে অনেকেই তার প্রতি ধিক্কার জানিয়েছেন।

বিষয়টিকে ‘রাজনৈতিক পক্ষপাতদুষ্ট’ মন্তব্য করে পরিচয় গোপন রাখার শর্তে একজন রাজনৈতিক বিশ্লেষক বলেন, সুদূর লন্ডনে বসে দেশের বাস্তব চিত্র না দেখেই মনগড়া তথ্য দিয়ে বক্তব্য দেয়া তারেক রহমানের পুরনো অভ্যাস। ঈদের পূর্বে জনমনে বিভ্রান্তি ছড়াতে তিনি কৌশলে এমন মিথ্যাচারপূর্ণ কথাবার্তা বলেছেন। তার দাবিগুলো অযৌক্তিক, ভিত্তিহীন ও একপেশে। রাজনৈতিক পক্ষপাতিত্ব ও অদূরদৃষ্টিতা নিয়ে তারেক এই অপকর্ম করেছেন। যার কারণে তার লাইভে অসংখ্য মানুষ তার মিথ্যার প্রতিবাদ করেছেন। দুঃখের বিষয় হলো, রমজানেও মিথ্যাচার থেকে দূরে থাকতে পারেননি তারেক। লাইভে এসে নিজেকে নেতা জাহির করতেই তিনি এমন গুজব ছড়িয়েছেন।

রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর