• বুধবার   ২৭ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৭

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
৩৮

ঘূর্ণিঝড়ে জনগণের পাশে নেই বিএনপি, বক্তৃতা দিয়ে দায় সারছেন নেতারা

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২১ মে ২০২০  

ঘূর্ণিঝড় আম্পান এর ক্ষয়-ক্ষতি মোকাবিলায় নিরলস পরিশ্রম করছে সরকার। সুপার সাইক্লোন আম্পানের ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে এখন পর্যন্ত ২০ লাখ মানুষকে আশ্রয়কেন্দ্রে নেওয়া হয়েছে। বরাদ্দ দেয়া হয়েছে খাদ্য, নগদ অর্থ, পশুখাদ্য ও শুকনো খাবার। মনিটরিং সেল গঠন করে প্রতিনিয়ত ঝড়ের খোঁজ-খবর রাখছেন প্রধানমন্ত্রী। দেশবাসীকে ঝড়ের হাত থেকে রক্ষা করতে দলীয় কর্মীদের সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিতেও আহ্বান জানিয়েছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ।

ঘূর্ণিঝড় আম্পান মোকাবিলায় সরকার এতো প্রস্তুতি নিলেও দেশ ও দশের বিপর্যয়ে নীরবতা পালন করছে বিএনপি। জানা গেছে, উপকূলীয় অঞ্চলের মানুষদের রক্ষায় কোন পদক্ষেপই নেয়নি দলটি। শুধু মাত্র লোক দেখানো একটি বার্তা দিয়ে দলীয় কর্মীদের সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়ে দায় সেরেছে বিএনপি। তবে গুঞ্জন উঠেছে, উপকূলীয় এলাকায় বিএনপি ভোট কম থাকায় প্রতিবারের ন্যায় এবারও ঘূর্ণিঝড় আম্পান নিয়ে ততোটা চিন্তিত নয় তারা। দলটির ভাষায়-আম্পানের ক্ষতি মোকাবিলার দায়িত্ব সরকারের, বিএনপির নয়। যার কারণে উপকূলীয় এলাকায় বিএনপির তরফ থেকে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে না। উপকূলীয় জেলা খুলনা, বরগুনা, সাতক্ষীরার মতো জেলায় ঘূর্ণিঝড়ের ক্ষতি মোকাবিলায় বিএনপি নেতারা নীরবতা পালন করছেন।

ঘূর্ণিঝড়ে বিএনপি জনগণের পাশে নেই, এমন অভিযোগের সত্যতা জানতে যোগাযোগ করা হলে দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রিজভী আহমেদ বলেন, আমরা উপকূলীয় অঞ্চলের নেতাদের তাগিদ দিয়েছে, তারা যেন জনগণের পাশে দাঁড়ান। আমরা খোঁজ নিচ্ছি। সত্যি বলতে, প্রাকৃতিক দুর্যোগের সামনে মানুষ অসহায়। এছাড়া মৃত্যুভয় তো থাকেই। এখন সম্ভব না হলেও ঝড় পরবর্তী সময়ে আমরা জনগণের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করব।

রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর