সোমবার   ২১ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৬ ১৪২৬   ২১ সফর ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
৫২

চির যৌবনা সন্দ্বীপে ঘুরে আসুন

প্রকাশিত: ২৫ জুলাই ২০১৯  

বিশাল চর জেগে উঠছে পশ্চিমে, ভাঙছে পূর্বাঞ্চল। তারপরও রূপের ব্যঘাত কমেনি একটুও। এ যেন চির যৌবনা! সাগর আর নদীর অথই জলপথ পেরিয়ে দ্বীপের ভূখণ্ডে নামলেই শরীর যেন শিহরিত হয়ে ওঠে। চারিদিকে এক পলক চেয়ে মুহূর্তে মুগ্ধ হতে হয়। এমন সৌন্দর্য চট্টগ্রামের দ্বীপ উপজেলা সন্দ্বীপের।

চট্টগ্রাম জেলার এই দ্বীপের গল্পটি শত বছরের পুরনো। মনোরম স্নিগ্ধ পরিবেশ আর মুক্ত হাওয়ার কারণে জায়গাটি অনন্য। কাম্পিংয়ের জন্য সন্দ্বীপ একটি আদর্শ স্থান। সেটা অনেক আনন্দের ও উপভোগ্য হবে। এক্ষেত্রে স্থানীয়দের সাহায্য নিতে পারেন উপযুক্ত জায়গা নির্বাচন করার জন্য। সঠিক জায়গা বেছে নিয়ে তাঁবু করে ফেলুন। সঙ্গে থাকবে রাতের তারার মিটিমিটি আলো, খোলা আকাশের নিচে নদীর কলকল ধ্বনি।

এখানকার সবই দেখার মতো! সমুদ্র সৈকত, ফসল ভরা মাঠ, সবুজ প্রকৃতি, হাট-বাজার সব কিছুই। দ্বীপের উত্তর থেকে দক্ষিণের সব প্রান্ত ঘুরে দেখতে পারেন অনায়াসে। উত্তরে দেখতে পারেন তাজমহলের আদলে নির্মিত শত বছরের পুরনো মরিয়ম বিবি সাহেবানী মসজিদ। আছে বড় দিঘী ও মাজার। দ্বীপের দক্ষিণে আছে ঐতিহ্যবাহী শুকনা দিঘী, অসংখ্য মসজিদ, স্কুল, মাদ্রাসা ও বড় বড় খেলার মাঠ। ভাগ্য ভালো থাকলে দেখতে পারবেন বাউল গানের আসর। আরো বেড়ানো যায় সন্দ্বীপের উত্তরের আমানুলার চর, উত্তর-পূর্ব দিকের উড়ির চর, কালাপানি ও দক্ষিণ দিকের কালিয়ার চরে।

 

এ যেন চির যৌবনা দ্বীপ!

এ যেন চির যৌবনা দ্বীপ!

 

এটি দ্বীপ হলেও নিত্য প্রয়োজনীয় সমস্ত খাবার অতি সহজে পাওয়া যায় এখানে। সামুদ্রিক মাছ, মাংস থেকে শুরু করে পিঠা সব কিছু পাবেন। আর শীতের মৌসুমে মিলবে সবচেয়ে সুস্বাদু খেজুরের রসের পায়েস। এছাড়া দ্বীপের বিখ্যাত মিষ্টি খেয়ে নিতে পারেন। সেজন্য আপনাকে দ্বীপের দক্ষিনে শিবের হাট পর্যন্ত যেতে হবে।

বর্ষা শেষ বা শীতে এই দ্বীপ থেকে ঘুরে আসতে পারেন। সব কিছু ঘুরে দেখে আসার জন্য এই সময়ের কোনো বিকল্প নেই। জনপ্রতি ৩ হাজার টাকার মধ্যে আপনি খুব ভালোভাবে ভ্রমণ করে আসতে পারবেন সন্দ্বীপ থেকে। স্থানীয় কোন বন্ধু থাকলে তো আর কথা নেই!

যেভাবে যাবেন

প্রথমেই আপনাকে যেতে হবে সীতাকুন্ডের কুমিরা ঘাটে। সেখান থেকে ট্রলারে করে যেতে পারেন। তবে দ্বীপে দ্রুত আসা-যাওয়া করতে চাইলে স্পিড বোডই ভরসা। এক্ষেত্রে গুনতে হবে জনপ্রতি ৩৫০ টাকা। এ ভ্রমনে আনন্দ আছে, সময়ও বাঁচবে। উঠা নামায় সমস্যা, কাদা মাখামাখি করতে হবে না। একাধিক সঙ্গী হলে একটা বোট ভাড়া করে যেতে পারেন।

এই বিভাগের আরো খবর