• সোমবার   ২৫ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১০ ১৪২৭

  • || ০২ শাওয়াল ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
৫৪

টকশোতে এসে কমেন্টে পাবলিকের ধোলাই খেলেন মাসুম-সাকি

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১৭ মে ২০২০  

১লা মার্চ ২০১৮ তারিখে আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করা বাংলাদেশের বেসরকারি স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল নাগরিক টিভির নামকে ব্যবহার করে যুক্তরাষ্ট্রে চলা নকল নাগরিক টিভিতে টকশো করে সাধারণ দর্শকদের প্রতিরোধের মুখে পড়েছেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি এবং বিএনপি সমর্থক ব্লগার এম রহমান মাসুম।

জানা গেছে, সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক নকল নাগরিক টিভির টকশো-এ আমন্ত্রিত বেনামী ব্যক্তিগণ সরকারের বিষয়ে নানা প্রকারের মিথ্যা সমালোচনা করছিলেন। যার প্রতিবাদ স্বরূপ ফেসবুকে চলতে থাকা লাইভ অনুষ্ঠানটিতে দর্শকরা আমন্ত্রিত অতিথিদের উদ্দেশ্যে নানা মন্তব্য করেন। লাইভ শুরুর দুই মিনিট ১০ সেকেন্ডের সময় মোহাম্মদ আইয়ুব কমেন্ট করেন, আসুন ডিজিটাল প্রতারক মাসুমের প্রতারণার গল্প শুনি। দুই মিনিট ২২ সেকেন্ডে সাইদুর রহমান লিখেন, কিসের নেতা সাকি, উনি তো বাটপার। ৩ মিনিট ১৩ সেকেন্ডে শোভন শাকিল লেখেন, সাকি সাহেব এখানে কেনো? আজিজ রহমান লিখেছেন, চলে এসেছেন দালালরা লাইভে। ৩ মিনিট ২২ সেকেন্ডে আনন্দ আফসার লেখেন, সাকি মাল তো ভোটই পান না নিজের এলাকায়।

এছাড়া ৫৩ মিনিট চলা পুরো টকশোতেই দর্শকরা মাসুম ও সাকিকে ঠক, প্রতারক বলে আখ্যায়িত করে যাচ্ছিলেন। ২১ মিনিট ৩০ সেকেন্ডে মোহাম্মদ স্বপন বলেন, বাহ, ভালই তো চাপা মারে মাসুম। ৩৮ মিনিট ৯ সেকেন্ডের সময় ইন্তেখাব দিনার বলেন, এই মাসুম কোন যৌক্তিক কথা বলছেন? তিনি তো মিথ্যাচার করছেন লাগাতার ভাবে। এটা উদ্দেশ্য প্রণোদিত।

হঠাৎ সাধারণ মানুষ কেনো জুনায়েদ সাকি এবং এম রহমান মাসুমের বিষয়ে এতো ক্ষেপে উঠলো এ বিষয়ে জানতে চাইলে এক ব্লগার বলেন, আসলে বর্তমান সময়ে সাধারণ মানুষ আর নেতিবাচক কথা শুনতে চায় না। সকলেই উন্নয়নের সঙ্গী হতে চায়। নিশ্চয়ই ফাঁকা বুলি ছুড়ে বেশিদিন টিকে থাকা যায় না।

এদিকে সাধারণ মানুষের এই বিরূপ মনোভাবের বিষয় সাকি ও মাসুমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা কোনো কথা বলতে রাজি হননি।

রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর