• বৃহস্পতিবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৯ ১৪২৭

  • || ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
‘প্রতিবন্ধীদের উন্নয়নে সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে’ পার্বত্য শান্তিচুক্তি বিশ্বে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে: রাষ্ট্রপতি সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সর্বত্র শান্তি বজায় রাখতে বদ্ধপরিকর ব্যান্ডউইথ কিনবে সৌদি-ভারত-নেপাল-ভুটান, প্রধানমন্ত্রীর উচ্ছ্বাস মহান বিজয়ের মাস শুরু এইডস রোগ নির্মূল করার জন্য সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ: প্রধানমন্ত্রী সারাদেশে রেল যোগাযোগ গড়ে তোলা হবে: প্রধানমন্ত্রী ঢাকা থেকে পায়রাবন্দর পর্যন্ত রেললাইন নিয়ে যাব: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু রেল সেতুর নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে বিতর্কের পিছনে ভিন্ন উদ্দেশ্য আছে- কাদের

দেশ দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে: নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২০  

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ বলেছেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার দেশের মানুষের যেকোনো বিপদে পাশে দাঁড়াচ্ছে। কারোনাকালেও তিন মাস মানুষের ঘরে খাবার পৌঁছে দেয়া হয়েছে। দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির হার বৃদ্ধি পেয়েছে। বৈশ্বিক কঠিন সময়েও শেখ হাসিনার হাত ধরে দেশ দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে।

শনিবার দুপুরে দিনাজপুরের বিরল উপজেলা পরিষদ হলরুমে ক্ষুদ্র প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী বলেন, ১৯৭৫ সালের পরে প্রথমবারের মতো দেশে কৃষির জন্য ভর্তুকি দিয়েছিল শেখ হাসিনা সরকার। কিন্তু অনেক সরকার কখনো কৃষির জন্য ভর্তুকি দেয়নি।

খালিদ মাহমুদ বলেন, কৃষকদের ভর্তুকি দিতে শেখ হাসিনার সরকারকে বাঁধা দিয়েছিল বিশ্বব্যাংক। তখন শেখ হাসিনা বলেছিলেন, বিশ্বব্যাংকের কথায় বাংলাদেশ চলবে না। বাংলাদেশের মানুষের ভালোর জন্য যেভাবে চলা প্রয়োজন সেভাবেই সরকার চলবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আওয়ামী লীগের শাসনামলে কৃষকদের সার, বীজ, কীটনাশকের জন্য যুদ্ধ করতে হয়নি। কৃষি উপকরণের জন্য কৃষিপণ্য নষ্ট করতে হয়নি। কিন্তু ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত কৃষকরা সার পায়নি। ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ পুনরায় ক্ষমতায় এসে বিএনপির বাড়ানো ২৪ টাকার সার ১৬ টাকায় নামানো হয়েছে।

বিরল ইউএনও সোয়াইব হোসেনের সভাপতিত্বে সার, বীজ বিতরণী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন দিনাজপুরের অ্যাডিশনাল ডিসি (সার্বিক) মো. শরিফুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান বাবু, বিরলের পৌর মেয়র সবুজার সিদ্দীক সাগর, বিরল উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রমাকান্ড রায় প্রমুখ।