• বুধবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৭

  • || ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
পার্বত্য শান্তিচুক্তি বিশ্বে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে: রাষ্ট্রপতি সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সর্বত্র শান্তি বজায় রাখতে বদ্ধপরিকর ব্যান্ডউইথ কিনবে সৌদি-ভারত-নেপাল-ভুটান, প্রধানমন্ত্রীর উচ্ছ্বাস মহান বিজয়ের মাস শুরু এইডস রোগ নির্মূল করার জন্য সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ: প্রধানমন্ত্রী সারাদেশে রেল যোগাযোগ গড়ে তোলা হবে: প্রধানমন্ত্রী ঢাকা থেকে পায়রাবন্দর পর্যন্ত রেললাইন নিয়ে যাব: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু রেল সেতুর নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে বিতর্কের পিছনে ভিন্ন উদ্দেশ্য আছে- কাদের সৌদি সহায়তায় আটটি ‘আইকনিক মসজিদ’ নির্মাণ হবে : প্রধানমন্ত্রী

দ্রুতগতির ইন্টারনেট টেস্টিং শুরু, স্পিড হবে ১৫০ এমবি

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২৯ অক্টোবর ২০২০  

স্পেসএক্স-এর স্টারলিংক প্রজেক্টের পাবলিক বেটা টেস্টিং এরইমধ্যে শুরু হয়েছে। পরীক্ষামূলক এ প্রোগ্রামের নাম দেয়া হয়েছে ‘বেটার দেন নাথিং বেটা’। জানা গেছে, ব্যবহারকারীরা ৬০০ ডলার খরচ করে এই প্রোগ্রামে অংশ নিচ্ছেন। প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতির জন্য ৪৯৯ ডলার আর সাবস্ক্রিপশন ফিয়ের জন্য ৯৯ ডলার ব্যয় করতে হবে।

বেটা টেস্টিংয়ের বিষয়টি কয়েকজন ব্যবহারকারী রেডিট ইউজার ফোরামে প্রকাশ করলেও নাম পরিচয় গোপন রেখেছেন। কারণ গণমাধ্যমে কিছু বলার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে স্পেসএক্স। তারা জানান ইমেইলে বলা হয়েছে, আগামী কয়েক মাসের জন্য ইন্টারনেটের স্পিড হবে ৫০ থেকে ১৫০ মেগাবাটইস প্রতি সেকেন্ডে; ল্যাটেন্সি হবে ২০ থেকে ৪০ মিলিসেকেন্ড।

এর আগে গত জুনে জিপকোড ও ইমেইল অ্যাড্রেস দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে বলা হয়। রেজিস্টারর্ড ব্যবহারদেরকে ইমেইল দিয়ে বেটা টেস্টিং প্রোগ্রামে যোগ দেয়ার আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে।

দ্রুতগতির ইন্টারনেট সেবা দিতে মহাকাশে স্টারলাইট স্যাটেলাইট স্থাপনের কাজ করছে মালিকানাধীন মহাকাশভিত্তিক প্রতিষ্ঠান স্পেসএক্স। এরইমধ্যে তারা শতবার রকেট উৎক্ষেপণের মাইলফলক স্পর্শ করলো এলন মাস্কের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানটি।

স্পেসএক্স জানায়, কক্ষপথে তারা ১২ হাজারের মতো স্যাটেলাইট পাঠাতে চায়। অধিকাংশ স্যাটেলাইট পৃথিবী থেকে ১ হাজার কিলোমিটার উপরে থাকে। কিন্তু স্টারলিং স্যাটেলাইটগুলো থাকে অনেক নিচে, প্রায় ৫৫০ কিলোমিটার উচ্চতায়। প্রথাগত স্যাটেলাইটের চেয়ে তাদের এই স্যাটেলাইটের মাধ্যমে বেশি গতির ইন্টারনেট পাওয়া যাবে।