• সোমবার   ২৬ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ১০ ১৪২৭

  • || ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

পিরোজপুর সংবাদ

নাজিরপুরে কলেজ ছাত্রী ও স্কুল ছাত্রকে দিনভর নির্যাতন, আটক-১ 

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০  

পিরোজপুর প্রতিনিধিঃ

পিরোজপুরের নাজিরপুরে দ্বাদশ শ্রেণির এক কলেজছাত্রী ও দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রকে দিনভর আটক রেখে নির্যাতন ও যৌন হয়রানীর অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার জেলার নাজিরপুর উপজেলার শাখারীকাঠী ইউনিয়নের গোপেরখাল নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। আহত কলেজ ছাত্রী ও স্কুল ছাত্র বর্তমানে নাজিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছে।

পুলিশ এ ঘটনায় মনির শেখ নামের এক জনকে আটক করেছে। আটক মনির শেখ জেলার নাজিরপুর উপজেলার শাখারীকাঠী ইউনিয়নের গোপেরখাল গ্রামের ময়ূর আলী শেখের পুত্র। 

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই কলেজ ছাত্রী জানান, বুধবার সকালে ওই ছাত্রী নাজিরপুর উপজেলা সদরে প্রাইভেট পড়া শেষে তার প্রতিবেশী ছোটভাই দশম শ্রেণির ছাত্র কে সাথে নিয়ে উপজেলার শাখারীকাঠী ইউনিয়নের হোগলাবুনিয়া গ্রামে দাদার বাড়ীতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। সকাল ৯ টার দিকে ওই ইউনিয়নের গোপেরখাল নামক এলাকায় পৌছলে স্থানীয় মনির, অভিজিৎ, শফিক মল্লিক ও শুভ তাদের পথরোধ করে জোরপূর্বক পার্শ্ববর্তী একটি কলা বাগানে নিয়ে যায়। সেখানে তারা তাদের দুজনের মধ্যে কি সর্ম্পক জানতে চায়। তখন ওই ছাত্রী তার সাথে থাকা ঐ ছাত্রকে তার প্রতিবেশী ছোট ভাই বলে জানালে তারা তাদের দুজনকে মারধর করে এবং তাদের মধ্যে অবৈধ সর্ম্পক আছে এ কথা বলতে বাধ্য করার চেষ্টা করে। তাতে রাজি না হওয়ায় তাদের দুজনকেই মারধর করে। এক পর্যায়ে জোর পূর্বক ওই বখাটেরা তাদের দু’জনকে দিনভর সেখানে আটক রাখার পর তাদের অভিভাবকদের ফোন করে এক লাখ টাকা মুক্তিপণ আনতে বলে। এতে রাজী না হওয়ায় তাদেরকে পুনরায় মারধর করে এবং নানা ভাবে তাদের যৌন হয়রানী করে। 

কলেজ ছাত্রী আরো জানান, এ সময় স্থানীয়রা তাদের চিৎকার শুনে তাদের উদ্ধার করে আহতবস্থায় চিকিৎসার জন্য সন্ধ্যার দিকে নাজিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। 
নাজিরপুর থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম মুনির জানান, এ ঘটনায় জড়িত মুল আসামী মনিরকে ইতোমধ্যে আটক করা হয়েছে এবং মামলা রুজুর প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।