বুধবার   ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ৭ ১৪২৬   ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
৮০

পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলায় ৩ ইউনিয়ন ভেঙ্গে ৫ টি করা হয়েছে!

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারি ২০২০  

 

“উপজেলা সৃষ্টির ১৯ বছর পর” পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলায় ৩ টি ইউনিয়ন ভেঙ্গে হল আরও দুটি নুতন ইউনিয়ন। বর্তমানে এই উপজেলায় ইউনিয়নের সংখ্যা হল ৫ টি। নতুন ইউনিয়ন দুটি হল ইন্দুরকানী সদর ও চন্ডিপুর।এর আগে ২০০২ সালের ২১ এপ্রিল পিরোজপুর জেলার ইন্দুরকানী থানার পত্তাশী, পড়েরহাট ও বালিপাড়া তিনটি ইউনিয়ন নিয়ে পিরোজপুর জেলার ৭ম উপজেলা জিয়ানগর নামে উপজেলা গঠিত হয় যার বর্তমান নাম ইন্দুরকানী।এ উপজেলার দুটি ইউনিয়নের আয়তন ও লোকসংখ্যা আনুপাতিক হারে অনেকটা বেশী হওয়ায় প্রশাসনিক কাজ কর্মে সুবিধার জন্য পত্তাশী ইউনিয়নকে ভেঙ্গে দুটি ইন্দুরকানী সদর ও পত্তাশী এবং বালিপাড়া ইউনিয়নকে ভেঙ্গে বালিপাড়া ও চন্ডিপুর ইউনিয়ন পরিষদ গঠন করা হয়েছে। ২০১৯ সালের ২৬ নভেম্বর স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইন, ২০০৯ এর ১১ ধারা অনুযায়ী স্থানীয় সরকার বিভাগ ইউপি-১ শাখার নির্দেশনা মোতাবেক পিরোজপুর জেলা প্রশাসক আবু আলী মোঃ সাজ্জাদ হোসেন জেলা’র ইন্দুরকানী উপজেলার পত্তাশী ও বালিপাড়া ইউনিয়ন ভেঙ্গে ইন্দুরকানী সদর ও চন্ডিপুর ইউনিয়ন নামে দুটি নুতন ইউনিয়ন ঘোষণা করেন। যা গত ২৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ গেজেটে প্রজ্ঞাপন আকারে প্রকাশিত হয়েছে। নুতন ইউনিয়ন ইন্দুরকানী সদরে ওয়ার্ড সংখ্যা ৯ টি, জনসংখ্যা ১৭,৭১৫ জন এবং চন্ডিপুর ইউনিয়নে ওয়ার্ড সংখ্যা ৯ টি, জনসংখ্যা- ১৬,৯৪৪ জন।উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হোসাইন মুহাম্মদ আল-মুজাহিদ জানান, এ উপজেলায় নুতন দুটি ইউনিয়ন হওয়ায় সরকারের উন্নয়ন সাফল্য তৃণমূল মানুষের কাছে যেতে আর কোন বাধা রইল না।

এই বিভাগের আরো খবর