• বৃহস্পতিবার   ২৮ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪২৭

  • || ০৫ শাওয়াল ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
১২৮

ফিটকিরি, চুন, চিনি দিয়ে তৈরি হচ্ছে গুড়!

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১৮ মে ২০২০  

পাবনার চাটমোহরে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে ভেজাল গুড় তৈরির কারখানার সন্ধান  পেয়েছে। ওই কারখানা থেকে ১০০ মণ ভেজাল গুড় জব্দ করা হয়। ওই কারখানায় ফিটকিরি, চুন, চিনি দিয়ে তৈরি করা হতো গুড়। ভেজাল গুড় তৈরির দায়ে তিন গুড় ব্যবসায়ীকে ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা এবং ভেজাল গুড় তৈরির উপকরণ জব্দ করে নষ্ট করা হয়।

রবিবার (১৭ মে) ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইকতেখারুল ইসলাম এ অভিযান পরিচালনা করেন।
অর্থদণ্ডপ্রাপ্ত গুড় ব্যবসায়ীরা হলেন, আব্দুস সালাম (৬০), সৈয়দ আলী (৫৫) ও আনু মন্ডল (৪০)। তারা দীর্ঘদিন ধরে ভেজাল গুড় তৈরি ও বাজারজাত করে আসছিলেন।

ভেজাল গুড়

অভিযানে ১০০ মণ ভেজাল গুড়, ভেজাল গুড় তৈরির উপকরণ ১০ কেজি ফিটকিরি, ৫ বস্তাা (প্রতি বস্তা ৫০ কেজি) চিনি, এক কেজি রং, চুন ১০ কেজি  জব্দ করে নষ্ট করা হয়।
ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইকতেখারুল ইসলাম জানান, উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ভেজাল গুড় তৈরি ও বিক্রি হচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে রবিবার অভিযান চালানো হয়। অভিযানের শুরুতে বাহাদুরপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে আব্দুর সালামের ভেজাল গুড় তৈরির কারখানার সন্ধান মেলে। সেখান থেকে ভেজাল গুড় ও গুড় তৈরির উপকরণ জব্দ করা হয়। পরে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে ভেজাল গুড় ব্যবসায়ী আব্দুস সালামের ৩০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে তিনি জরিমানার টাকা দিয়ে মুক্ত হন।

ভেজাল গুড়
এরপর উপজেলার অমৃতকুন্ডা হাটে অভিযান চালিয়ে ভেজাল গুড় বিক্রির সময় দুই গুড় ব্যবসায়ী সৈয়দ আলী ও আনু মন্ডলকে আটক করা হয়। এ সময় বেশকিছু ভেজাল গুড় জব্দের পর নষ্ট করে ফেলা হয়। এসময় সৈয়দ আলীর কাছ থেকে ৫ হাজার ও আনু মন্ডলের কাছ থেকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

অপরাধ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর