• শনিবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৮ ১৪২৯

  • || ০৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে বঙ্গবন্ধু ট্রাস্টের সভা বাংলাদেশ সবসময় ভারতের কাছ থেকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার পায় কর ব্যবস্থাপনা তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী ১০ টাকায় টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী আইসিওয়াইএফ থেকে পাওয়া সম্মাননা প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর শিক্ষা ব্যবস্থা যাতে পিছিয়ে না যায় সে ব্যবস্থা নিচ্ছি প্রধানমন্ত্রীর কাছে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল হস্তান্তর প্লিজ যুদ্ধ থামান, সংঘাত থামাতে সংলাপ করুন: শেখ হাসিনা হানিফের সংগ্রামী জীবন নতুন প্রজন্মের রাজনৈতিক কর্মীদের দেশপ্রেম ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত করবে মোহাম্মদ হানিফ ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন পরীক্ষিত নেতা

বাংলা উইকিপিডিয়ায় শুরু হচ্ছে ‘উইকিগ্যাপ’

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২ মে ২০১৯  

উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ এবং সুইডিশ দূতাবাস বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগে বাংলা উইকিপিডিয়ায় শুরু হচ্ছে ‘উইকিগ্যাপ’ শীর্ষক সম্পাদনা বিষয়ক এডিট-আ-থন। বাংলা উইকিপিডিয়ার বিষয়বস্তুর জেন্ডারভিত্তিক অসমতা দূরীকরণের লক্ষ্যে নারীবিষয়ক নিবন্ধ তৈরি এবং মানোন্নায়নে এডিট-আ-থনের মূল প্রতিপাদ্য বিষয়।

বাংলা উইকিপিডিয়ায় অনলাইন এডিট-আ-থন আগামী ৩ মে থেকে ১৭ মে পর্যন্ত চলবে।

অনলাইন এ অনুষ্ঠান সম্পর্কে উইকিমিডিয়া বাংলাদেশের সভাপতি শাবাব মুস্তাফা বলেন, ‘ইংরেজি উইকিপিডিয়ার তুলনায় বাংলা উইকিপিডিয়ার বিষয়বস্তুতে লিঙ্গবৈষম্য আরও বেশি পরিমাণে বিদ্যমান। উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ, উইকিপিডিয়াতে নারীদের অংশগ্রহণ বৃদ্ধি ও একই সঙ্গে বাংলা ভাষার মুক্ত জ্ঞানভাণ্ডারে বিষয়বস্তুর সমতা আনার লক্ষ্যে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে এবং এর অংশ হিসেবে সুইডিশ দূতাবাসের সঙ্গে ‘উইকিগ্যাপ’ এডিট-আ-থনটি আয়োজন করা হচ্ছে।’

বিশ্বব্যাপী সুইডিশ দূতাবাস গত বছর থেকে উইকিপিডিয়ার বিষয়বস্তুর বৈষম্য লাঘবে স্থানীয় উইকিমিডিয়া চ্যাপ্টারসমূহের সঙ্গে #উইকিগ্যাপ ক্যাম্পেইন আয়োজন করে আসছে।

এ বিষয়ে ঢাকায় নিযুক্ত সুইডিশ রাষ্ট্রদূত সার্লোট্টা স্লাইটার বলেন, ‘সুইডেন বিশ্বের প্রথম দেশ যারা নারীবান্ধব পররাষ্ট্রনীতি গ্রহণ করেছে এবং সে লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। বিশেষ করে মানবাধিকার ও ন্যায়বিচারের ক্ষেত্রে লিঙ্গবৈষম্য দূর করতে আমরা কাজ করছি কারণ লিঙ্গ সমতা, শান্তি ও নিরাপত্তা টেকসই উন্নয়নের একটি মৌলিক শর্ত।’

তিনি আরও বলেন, ‘বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারী সফল হচ্ছে, ভার্চুয়াল জগতেও নারীদের অংশগ্রহণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। তথাপি বিশ্বের বৃহত্তম অনলাইন বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়াতে ৯০ ভাগ বিষয়বস্তু পুরুষ কর্তৃক লিখিত এবং নারীদের তুলনায় পুরুষ সম্পর্কিত নিবন্ধ কয়েক গুণ বেশি। উইকিপিডিয়ায় এ অসামঞ্জতা দূর করতেই সুইডিশ দূতাবাস এ আয়োজন করেছে।’

তিনি আশা প্রকাশ করেন, এ পদক্ষেপ বাংলা উইকিপিডিয়ায় বিষয়বস্তুর জেন্ডার অসমতা দূরকরণে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন আনবে।

উল্লেখ্য, এডিট-আ-থন শেষে বিজয়ীদের উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ ও সুইডিশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সার্টিফিকেট প্রদান করা হবে।

এডিট-আ-থন সম্পর্কে বিস্তারিত জানা যাবে https://bn.wikipedia.org/s/cq7g এই ঠিকানায়।