• বৃহস্পতিবার   ০৪ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২১ ১৪২৭

  • || ১২ শাওয়াল ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
করোনায় মৃত্যুর মিছিলে আরও ৩৫ জন, নতুন শনাক্ত ২৪২৩ মানুষকে সুরক্ষিত করতে প্রাণপণে চেষ্টা করছি: প্রধানমন্ত্রী সমুদ্র সম্পদের টেকসই ব্যবহারে প্রধানমন্ত্রীর তিন প্রস্তাব করোনা ও আম্পান মোকাবেলা অন্যদের শিক্ষা দিতে পারে দেশে আরও ২৬৯৫ করোনা রোগী শনাক্ত, নতুন মৃত্যু ৩৭ যেকোনো প্রতিবন্ধকতা মোকাবিলা করে এগিয়ে যেতে পারব: প্রধানমন্ত্রী দেশের প্রথম ভার্চুয়াল একনেকে ১৬২৭৬ কোটি খরচে ১০ প্রকল্প অনুমোদন গ্লোবাল ভ্যাকসিন সামিটে যোগ দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী মানুষ যাতে বাঁচতে পারে সেজন্যই এই সিদ্ধান্ত: প্রধানমন্ত্রী ১৫ জুনের মধ্যে হজের বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসতে পারে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী
২৮৮

বাড়ি দূষণমুক্ত রাখতে করণীয়

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১১ ডিসেম্বর ২০১৮  

ঘর থেকে বাইরে বের হলে সকলেই দূষণ নিয়ে উদ্বিগ্ন থাকেন! কিন্তু কখনো কি ভেবে দেখেছেন আপনার বাড়ি কিংবা নিজ ঘর দূষণমুক্ত কি না? আপনার বাড়ি দূষণমুক্ত রাখতে করণীয় কি? সে সম্পর্কে জেনে নিন-

১. ঘর পরিষ্কারের জন্য যে পরিষ্কারক রাসায়নিক উপাদানগুলো ব্যবহার করা হয় সেগুলোর এত গন্ধ হয় যে, অনেক সময় মাথা ধরে যায়। আবার অনেক সময় এমন পরিষ্কারক ব্যবহার করা হয় যা নাকে গেলে বিষক্রিয়ার সৃষ্টি হয়ে থাকে। এ কারণেই পরিষ্কারক কোনো উপাদান ব্যবহার করলে চেষ্টা করতে হবে, সেটা যেন প্রাকৃতিক উপাদান হয়। আর যদি তা সম্ভব না হয়, তবে অল্প পরিমাণ রাসায়নিক উপাদান রয়েছে এমন কোনো পরিষ্কার ব্যবহার করতে হবে। যাতে ঘর পরিষ্কার করতে গিয়ে তার কোনো প্রভাব শরীরে না পড়ে।

২. আমরা অনেক সময় ঘরের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য কার্পেট ব্যবহার করা হয়। জানেন কী? দৈনন্দিন কত পরিমাণ ধুলা পায়ের সঙ্গে এসে কার্পেটে জমে থাকে। এ ধূলোবালি শুধু ঘরকে নয়, খাবারকেও ক্ষতিগ্রস্থ করছে।কারণ কার্পেটে আটকে থাকা ধূলা প্রতিনিয়ত ঘরের মধ্যে উড়ে বেড়ায় যা খাবারকে দূষিত করে ও শ্বাস-প্রশ্বাসের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশের মাধ্যমে ক্ষতি করে থাকে। তাই ঘরে কার্পেট ব্যবহার করলে পরিষ্কারক হিসেবে ভ্যাকিউম ক্লিনার ব্যবহার করতে পারেন। এমনকি ঘরে সব সময়ের জন্য মাদুর বিছিয়ে রাখাও ঠিক নয়।

৩. ঘরে কোনোভাবেই ধূমপান করা যাবে না। কারণ দূষিত বাতাসের থেকেও শরীর ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে। তাই ঘর দূষণমুক্ত রাখতে চাইলে ধূমপান থেকে বিরত থাকুন।

৪. অনেকেই ঘরে এয়ার ফ্রেশনার বা সুগন্ধি মোম ব্যবহার করে থাকেন। এগুলো ব্যবহার করা যাবে না। কারণ এয়ার ফ্রেশনারে থাকে খুবই ক্ষতিকারক রাসায়নিক উপাদান। আর সুগন্ধি মোম বাতাসে এক ধরণের ক্ষতিকর উপাদান ছাড়ে যা শরীরের জন্য খুবই ক্ষতিকারক।

৫. ঘর পরিষ্কারের জন্য অনেকেই বৈদ্যুতিক যন্ত্র ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু এমন কোনো যন্ত্র ব্যবহার করবেন না যেগুলোতে দস্তা থাকে। কারণ দস্তা বাতাসের সঙ্গে মিশে অতিরিক্ত মাত্রায় বায়ু দূষণ করে থাকে। যার ফলে ঘরের মধ্যে দমবন্ধ করা অনুভূতি হতে পারে।

৬. ঘর পরিষ্কারের জন্য প্রতিদিন নিশ্চয়ই ঝাড়ু দিয়ে থাকেন।সেখান থেকেই আমাদের নানা রকম ফুসফুসের সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই ঝাড়ু দেয়ার সময় সতর্ক থাকতে হবে। এছাড়াও বাড়ি পরিষ্কার বা দূষণমুক্ত করতে এয়ার পিউরিফাই ব্যবহার করতে পারেন।

লাইফস্টাইল বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর