• বৃহস্পতিবার   ১৫ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২ ১৪২৮

  • || ০২ রমজান ১৪৪২

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
একদিনে করোনায় ৬৯ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬০২৮ শান্তিরক্ষীদের উপযুক্ত প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই : প্রধানমন্ত্রী বিশ্বে শান্তি নিশ্চিত করাটাই চ্যালেঞ্জ: প্রধানমন্ত্রী ২৪ ঘণ্টায় আরো ৭৮ জনের মৃত্যু ১২-১৩ এপ্রিল চলমান লকডাউনের নির্দেশনা জারি থাকবে: সেতুমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ স্বীকৃতি পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যাবর্তন জলবায়ু কূটনীতিতে নতুন গতির সঞ্চার হবে প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ সরকার গঠিত হয় একাত্তরের ১০ এপ্রিল ডি-৮ সদস্য দেশগুলোর মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়াতে হবে:প্রধানমন্ত্রী

বেশি আয়ের লোভে ফটোগ্রাফি পেশা ছেড়ে মলমপার্টিতে

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ৪ মার্চ ২০২১  

পেশায় কেউ ছিলেন দোকানের কর্মচারী আবার কেউ ছিলেন ফটোগ্রাফি পেশায়। বর্তমানে এসব পেশায় আয়-রোজগার কম হওয়ায় তারা পেশা বদলে ছিনতাই-মলমপার্টিতে যুক্ত হয়। রাজধানীর উত্তরা আব্দুল্লাহপুর থেকে থেকে অভিযান চালিয়ে মলমপার্টির সাত সদস্যকে গ্রেফতার করেছে অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

গ্রেফতাররা হলেন- মূলহোতা স্বপন (৫২), ফিরোজ (৪০), মাসুদ রানা (৫১), শহীদুল ইসলাম (৫১), জাকির হোসেন জাকির (৫৫), শহীদুল ইসলাম ওরফে শহীদুল (৩৩) ও হাবিবুর রহমান সিরাজ ওরফে সিরাজ মুন্সী (৫০)। এ সময় তাদের কাছ থেকে চারটি প্লাস্টিকের ছোট কৌটাভর্তি মলম, ছোট একটি প্লাস্টিকের কৌটায় টাইগার বাম জাতীয় মলম, একটি স্টিলের ছোট কাঁচি, একপাতা ঘুমের ওষুধ জব্দ করা হয়।

বৃহস্পতিবার (৪ মার্চ) দুপুরে সিআইডির সদর দফতরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান সিআইডির ঢাকা মহানগরের অতিরিক্ত ডিআইজি শেখ ওমর ফারুক।

jagonews24

তিনি বলেন, গ্রেফতাররা পূর্বে অন্য পেশায় যুক্ত ছিলেন। কিন্তু আয়-রোজগার কম হওয়ায় ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও দ্রুত বেশি টাকা আয় করার জন্য যুক্ত হয় মলমপার্টিতে। আব্দুল্লাহপুর বেড়ীবাঁধ রোডের শিকদার এন্টারপ্রাইজের সামনে থেকে গতকাল বুধবার দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে এই মলমপার্টির সদস্যদেরকে গ্রেফতার করা হয়। মলমপার্টির সক্রিয় সদস্যরা একত্র হয়ে কৌশলে সহজ-সরল যাত্রীদের টার্গেট করে চেতনানাশক ওষুধ ও মলম প্রয়োগ করে টাকা ও মূল্যবান মালামাল ছিনিয়ে নেয়।

সিআইডির এই কর্মকর্তা বলেন, এই চক্রের আটজন সদস্য ছিল। তাদের মধ্যে একজন পালিয়ে গেছে। চক্রটি কোথায় অভিযান চালাবে এর আগে তারা জায়গাটি আগে রেকি করে নেয়। এছাড়াও তারা যে বাসে অপারেশন করে সেই বাসের কন্টাকটরও বিষয়টি জেনে থাকে। তাকেও এই টাকার ভাগ দেয়া হয়।

ওমর ফারুক বলেন, অজ্ঞানপার্টির সদস্যরা কেউ ১৪ বছর আবার কেউ এক/দুই মাস ধরে কাজ করছে। এদের কেউ দোকানদার, কেউ ফটোগ্রাফার পেশায় ছিলেন। তারা কম পরিশ্রমে বেশি টাকায় আয় করার লোভে এই পেশায় এসেছে বলে জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে।

jagonews24

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সিআইডির এই কর্মকর্তা বলেন, মলমপার্টির সংখ্যা কত এমন পরিসংখ্যান- এই মুহূর্তে আমার কাছে নেই। তবে আমরা নিয়মিত অভিযান চালিয়ে তাদের নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করবো।

সংবাদ সম্মেলনে সিআইডির ঢাকা মহানগর উত্তরের বিশেষ পুলিশ সুপার খালিদুল হক হাওলাদার, সহকারী মোহাম্মদ জহিরুল হক ও এএসপি (মিডিয়া) জিসানুল হক উপস্থিত ছিলেন।