শনিবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৪ ১৪২৬   ২২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
৩২

ভিপি নুরকে কাজে লাগিয়ে চলছে বিএনপির অপরাজনীতি!

প্রকাশিত: ৮ ডিসেম্বর ২০১৯  

 

এক মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান নুরুর হক নুর। তার পথচলা সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কার আন্দোলন থেকে। পরবর্তীতে তিনি ডাকসুর ভিপি নির্বাচিত হন। প্রথম থেকেই সরকারবিরোধী আওয়াজ তুলে তিনি লাইম লাইটে আসার চেষ্টা করেন। আর সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে তাকে হাত করেই চলছে বিএনপির অপরাজনীতির খেলা। তার ফেসবুক পেইজ অনুসন্ধানে জানা গেছে, পেইজটি বাংলাদেশ এবং লন্ডন থেকে যৌথভাবে পরিচালিত হয়। ফলে এতদিন নুর এবং বিএনপির ঘনিষ্ঠতা গুঞ্জন হিসেবে ধারণা করা হলেও এ অনুসন্ধান বিএনপির সাথে তার যোগসাদৃশ্য আরও স্পষ্ট করলো।

সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নুরের একটি ফোনালাপ ফাঁস হয়েছে। যা নিয়ে শুরু হয়েছে তীব্র সমালোচনা সমালোচনা। ওই ফোনালাপে নুরকে ১৩ কোটি টাকার লেনদেন সম্বন্ধে আলাপ করতে শোনা যায়। সেই ফোনালাপ এবং এর সঙ্গে জড়িত মহলের সম্পৃক্ততা নিয়ে নানা অনুসন্ধানে উঠে এসেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য।

অনুসন্ধানী তথ্য বলছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নুরের পেইজে মোট ১২ জন অ্যাডমিনের মধ্যে দুইজন অবস্থান করছেন যুক্তরাজ্যের লন্ডনে। এই দুই অ্যাডমিন মূলত লন্ডনে বিএনপি-জামায়াতের সাইবার টিমের সদস্য। এমনকি তারা জামায়াত-শিবিরের পেইজ ‘ইউকে বাঁশের কেল্লা’রও অ্যাডমিনশিপে আছে। নুরের ফেসবুক পেজের ট্রান্সপারেন্সি ফিচারে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে ১০ জনের প্রাইমারি কান্ট্রি লোকেশন দেয়া বাংলাদেশ, আর বাকি দুইজনের লোকেশন যুক্তরাজ্য।

এ ব্যাপারে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, ওই পেজের যুক্তরাজ্যে যে অ্যাডমিন রয়েছে, তার অবস্থান পূর্ব লন্ডনের ১১২-১১৬ হোয়াটচ্যাপেল রোডে। অর্থাৎ লন্ডনের ১১২-১১৬ হোয়াটচ্যাপেল রোডের বাড়িটি মূলত বিএনপির লন্ডন অফিস হিসেবে ব্যবহৃত হয়। ২০১৮ সালের ১১ এপ্রিল ওই অফিসটি উদ্বোধন করেন বিএনপির সাজাপ্রাপ্ত পলাতক নেতা তারেক রহমান। ওই অফিস থেকেই বিএনপির সাইবার টিম দেশ ও সরকারবিরোধী নানা প্রোপাগান্ডা চালিয়ে থাকে।

এদিকে নুরের এমন কর্মকাণ্ডে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। ডাকসুর এক সদস্য বলেন, ভিপি নুর বিএনপি-জামায়াতের হয়ে তাদের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। এর আগে সড়ক আন্দোলনসহ নানান ইস্যু মনোযোগের সঙ্গে খেয়াল করতে নুর এবং বিএনপির এজেন্ডার মিল পাওয়া যায়। বিএনপি যা লক্ষ্য বাস্তবায়ন করতে চায়, তাতে সোচ্চার হয় ভিপি নুরও। এমন প্রেক্ষাপটে অবিলম্বে ডাকসু থেকে তার পদত্যাগেরও দাবি উঠেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে।

এই বিভাগের আরো খবর