• বুধবার   ২৮ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ১৩ ১৪২৭

  • || ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

পিরোজপুর সংবাদ

মঠবাড়িয়ায় কাঠের তৈরী দৃষ্টি নন্দন মমিন মসজিদ দেখতে মানুষের ভিড়

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০  

মঠবাড়িয় প্রতিনিধিঃ পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ঐতিহ্যবাহি ‘মমিন মসজিদ’ উপমহাদেশের একমাত্র কাঠের তৈরি মসজিদ। এটি উপজেলার বুড়িরচর গ্রামের আকন বাড়িতে অবস্থিত। ইতিহাসের নিদর্শণ এই মসজিদটি দেখতে প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে লোক আসে। স্থানীয় সমাজসেবক ও ধর্মপ্রাণ ব্যক্তি মরহুম আলহাজ মমিন উদ্দিন আকন মসজিদটি ১২০ বছর পূর্বে মসজিদটি নির্মাণ করেছিলেন। মসজিদটি বাংলাদেশ সরকাবের প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর কর্তৃক সংরক্ষিত। এর কোনোরূপ ক্ষতিসাধন শাস্তিযোগ্য অপরাধ। "সর্বোচ্চ একবছর পর্যন্ত কারাদন্ড  অথবা জরিমানা বা উভয় দন্ড"।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, মসজিদটি সম্পূর্ণ কাঠের তৈরি। বহু দুষ্প্রাপ্য ও মূল্যবান কাঠ দ্বারা এটি নির্মিত। অসাধারণ ও দৃষ্টিনন্দন  এর নির্মাণশৈলী। বিভিন্ন সময় বর্ষার কারনে নামমাত্র কিছু কাঠ বা রংয়ের ক্ষতি হলেও পরবর্তীতে মেরামত করে সৌন্দয্য ধরে রাখা হয়েছে। এ পর্যন্ত কাঠে কোনো প্রকার পোঁকা লাগেনি।

মরহুম মমিন উদ্দিন আকনের নাতি আবুল কালম আজাদ বলেন, মসজিদের কাঠে সামান্য কিছু পিঁপড়ে ছাড়া অন্য কোনো পোকা দেখা যায় না। বহু দূর-দূরান্ত থেকে দর্শনার্থী,প্রিট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিক মসজিদটি দেখতে আসেন। তিনি আরও জানালেন,একবার জার্মানি থেকে এক নারী সাংবাদিকও এসেছিলেন। মসজিদে ৫ ওয়াক্ত নামাজ চলে। স্থানীয় মুসুল্লিরা এখানে নামাজ পড়েন এবং মসজিদটি নিয়ে গর্ববোধ করেন। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, ঐতিহ্যবাহি দৃষ্টি নন্দন এ মসজিদটির আরো সৌদর্য্য বাড়াতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের শুভদৃষ্টি কামনা করছে।