• সোমবার   ১৯ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ৬ ১৪২৮

  • || ০৬ রমজান ১৪৪২

পিরোজপুর সংবাদ

মঠবাড়িয়ায় কালী মন্দিরের প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনায় মামলায় গ্রেপ্তার ২

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ৬ মার্চ ২০২১  

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি : পিরোজপুর মঠবাড়িয়ায় কলাই ক্ষেতে ছাগল ঢুকে ফসল খাওয়াকে কেন্দ্র করে মন্দিরে প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় জগদীস নামে একব্যক্তি মন্দিরের পক্ষে কবির ও নাছির এর বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা করেছেন। পুলিশ কবির (৩৫) ও নাছির (৩০) কে শুক্রবার দুপুরে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃতদের শুক্রবার বিকেলেই আদালতে সোপার্দ করা হয়। কবির উপজেলার দক্ষিণ সোনাখালী কুদ্দুস হাওলাদারের ছেলে ও নাছির মধ্যে সোনাখালী গ্রামের ফজলুল হক হাওলাদারের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দক্ষিণ সোনাখালী নীলকান্ত মিস্ত্রি সাথে প্রতিবেশী কুদ্দুস হাওলাদারের জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিলো। এ নিয়ে শালিশ একাধিক বৈঠকও হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার নীলকান্ত মিস্ত্রিও ছাগল কুদ্দুসের কলাই ক্ষেতে ঢুকে ফসল খেলে তুমুল বাক বিতান্ড শুরু হয়। এ বিরোধের জেরে শুক্রবার সকালে নীলকান্ত মিস্ত্রি বাড়ির প্রতিমা ভাংচুর করা হয়। স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে স্থানীয় কবির ও নাছিরকে আটক করে। তবে স্বজনদের দাবি নাছির মানসিক ভারসাম্যহীন।

মঠবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদুজ্জামান জানান, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে দ্রুত পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জগদীস নামে একব্যক্তি দুই জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা করেছেন। কবির ও নাছির নামে দু‘জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত দুজনকে শুক্রবার বিকেলে তাদেরকে আদালতে সোপার্দ করা হয়