• শনিবার   ০৪ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ১৯ ১৪২৭

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
১০১

মসজিদে নামাজ আদায়ের নতুন দিক-নির্দেশনা

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ৩১ মে ২০২০  

পবিত্র নগরী মদিনাসহ বিশ্বের অনেকে দেশেই নামাজের জন্য মসজিদগুলো উন্মুক্ত করা শুরু করেছে। মহামারি করোনায় মুসল্লিদের নিরাপত্তায় এবং মসজিদে পরিবেশ রক্ষায় কিছু দিক-নির্দেশনা এবং সচিত্র প্রতিবেদন তুলে ধরেছেন দুই পবিত্র মসজিদ মক্কা-মদিনা (হারামাইন) দায়িত্বশীল কর্তৃপক্ষ।

মহামারি করোনা প্রতিরোধ ও নিরাপত্তার স্বার্থে এসব দিক-নির্দেশনা শুধু মুসল্লিদের জন্যই নয়, বরং মসজিদ কর্তৃপক্ষের জন্যও রয়েছে কিছু বিধি-নিষেধ। যা মুসল্লি ও মসজিদ কর্তৃপক্ষ উভয়ের জন্যই মেনে চলা আবশ্যক। আর তাহলো-

নিরাপদ থাকতে মুসল্লির জন্য নির্দেশনা-

jagonews24

> মসজিদে নামাজ আদায় করতে যাওয়ার আগে ও পরে উভয় হাত সাবান, পানি কিংবা জীবাণুমুক্তকরণ স্প্রে ব্যবহার করা।
> ছোট কিংবা একেবারেই বয়স্ক কোনো ব্যক্তির মসজিদে না যাওয়া।
> মসজিদে কুরআন পড়তে চাইলে মোবাইল কিংবা নিজের বহন করা কপি থেকে তেলাওয়াত করা।
> মসজিদে যাওয়ার সময় নিজের জায়নামাজ (বিছানা) সঙ্গে করে নিয়ে যাওয়া এবং আসার সময় নিয়ে আসা।
> মসজিদে গিয়ে ২ মিটার দূরত্বে অবস্থান করা এবং মুসাফাহা (হ্যান্ডশেক) না করা।
> শিশুদের সঙ্গে করে মসজিদে না নেয়া।
> নাক ও মুখে মাস্ক ব্যবহার করা।
> বাসায় ওজু করা।
> মসজিদে প্রবেশের সময় ভিড় এড়িয়ে দূরত্ব বজায় রেখে প্রবেশ এবং বের হওয়া।

নিরাপদ থাকতে মসজিদ কর্তৃপক্ষের জন্য নির্দেশনা-

jagonews24

> আজানের ১৫ মিনিট আগে মসজিদের গেট খোলা।
> নামাজের ১০ মিনিট পর মসজিদ বন্ধ করে দেয়া।
> আজানের পর জামআতের জন্য অপেক্ষা করার সময় কমনো অর্থাৎ আজানের পর ১০ মিনেটের মধ্যে জামাআতে ইকামাত দেয়া।
> মসজিদে সংরক্ষিত কুরআন মাজিদের পাণ্ডুলিপি কিংবা অন্যান্য ইসলামি বই বিতরণ বা সরবরাহ বন্ধ রাখা।
> প্রত্যেক মুসল্লিদের ২ মিটার দূরত্বে দূরত্বে দাঁড়ানোর বিষয়টি নিশ্চিত করা।
> মসজিদে সব শীতাতপনিয়ন্ত্রিত ব্যবস্থা (এয়ারকন্ডিশন এবং এয়ারকুলার) ও ঠাণ্ডা পানি সরবরাহ (ফ্রিজ/রেফ্রিজারেটর) বন্ধ রাখা।
> মসজিদে কোনো ধরনের খাদ্য-পাণীয় সরবরাহের অনুমোদন না দেয়া।
> মসজিদের ওজুখানা ও টয়লেট পুরোপুরি বন্ধ রাখা।
> মসজদে যে কোনো ধরনের অনুষ্ঠান, তালিম, খুতবাহ, কুরআন প্রশিক্ষণ ও হিফজখানা পরোপুরি বন্ধ রাখা।

এ বিষয়গুলো শুধু সৌদি আরবের মসজদের জন্যই নয়, বরং সারাবিশ্বে করোনা আক্রান্ত দেশগুলোর মধ্যে তা মেনে চলা জরুর।

এদিকে সৌদি আরবের মসজিদ খুলে দেয়ার ঘোষণার পর দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেয়া নিরাপত্তামূলক বিষয়গুলো মেনে চলার জন্য দেশের নাগরিক ও মসজিদ কর্তৃপক্ষ আহ্বান জানিয়েছেন ধর্ম বিষয়কমন্ত্রী ড. আব্দুল লতিফ আল-শায়খ।

উল্লেখ্য যে, রোববার থেকে পবিত্র নগরী মদিনার মসজিদে নববি সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। তবে সবাইকে এ নিরাপত্তার বিষয়গুলো মেনেই মসজিদে নামাজ আদায় করতে হবে। আর পবিত্র নগরী মক্কা তথা কাবা শরিফেও নাজাম চালু হবে। তবে সেখানে সব ওয়াক্তের নামাজ একসঙ্গে চালু হবে না। সীমিত ওয়াক্ত ও সময়ের কঠোর দিক-নির্দেশনার মাধ্যমে সবার জন্য উন্মুক্ত হওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।

সর্বোপরি কথা হলো-
এ নির্দেশনা শুধু মক্কা-মদিনা আর সৌদি আরবের জন্যই প্রযোজ্য নয়, বরং সারাবিশ্বের সব ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সবার প্রার্থণাগৃহে এ নিয়ম মেনা চলায় রয়েছে নিরাপত্তা। সবার এ দিক-নির্দেশনা মেনে চলা উচিত।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহর সব মুসল্লি এবং মসজিদ কর্তপক্ষকে উল্লেখিত দিক-নির্দেশনাগুলো মেনে চলার মাধ্যমে মহামারি করোনা থেকে নিরাপদ ও সুস্থ থাকার তাওফিক দান করুন। আমিন।

ধর্ম বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর