• বুধবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৭

  • || ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
পার্বত্য শান্তিচুক্তি বিশ্বে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে: রাষ্ট্রপতি সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামসহ সর্বত্র শান্তি বজায় রাখতে বদ্ধপরিকর ব্যান্ডউইথ কিনবে সৌদি-ভারত-নেপাল-ভুটান, প্রধানমন্ত্রীর উচ্ছ্বাস মহান বিজয়ের মাস শুরু এইডস রোগ নির্মূল করার জন্য সরকার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ: প্রধানমন্ত্রী সারাদেশে রেল যোগাযোগ গড়ে তোলা হবে: প্রধানমন্ত্রী ঢাকা থেকে পায়রাবন্দর পর্যন্ত রেললাইন নিয়ে যাব: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু রেল সেতুর নির্মাণ কাজ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে বিতর্কের পিছনে ভিন্ন উদ্দেশ্য আছে- কাদের সৌদি সহায়তায় আটটি ‘আইকনিক মসজিদ’ নির্মাণ হবে : প্রধানমন্ত্রী

মুজিববর্ষ উপলক্ষে ১০০ ফুডকর্মীকে প্রশিক্ষণ দিল পর্যটন করপোরেশন

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২০  

মুজিববর্ষ উপলক্ষে ‘ফুড হাইজিন’ (স্বাস্থ্যসম্মতভাবে খাবার তৈরি) বিষয়ে ১০০ জন ফুডকর্মীকে বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ দিয়েছে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন (বাপক)।

শনিবার (২১ নভেম্বর) সকাল ১০টায় বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন পরিচালিত ‘ন্যাশনাল হোটেল অ্যান্ড ট্যুরিজম ট্রেনিং ইন্সটিটিউট’ (এনএইচটিটিআই) মহাখালীতে এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচি শুরু হয়।

জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে বাপকের বাৎসরিক কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিনামূল্যে এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

এক বিজ্ঞপ্তিতে বাপক জানায়, ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় খাবার প্রস্তুতের সাথে জড়িত ১০০ জন মেধাবী গরিব ফুডকর্মী ও উদ্যোক্তাদের অংশগ্রহণের মাধ্যমে বিনামূল্যে ১০০ মিনিট ‘ফুড হাইজিন’ বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মসূচি শুরু হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠানটির শুভ উদ্বোধন করেন বাপকের চেয়ারম্যান রাম চন্দ্র দাস। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সরকারের যুগ্ম-সচিব ও বাপকের পরিচালক (পরিকল্পনা ও বাণিজ্যিক) মো. আব্দুস সামাদ।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে ১০০ ফুডকর্মীকে প্রশিক্ষণ দিল পর্যটন করপোরেশন

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাম চন্দ্র দাস বলেন, ‘খাবার মানুষের মৌলিক চাহিদা। অথচ আমরা দেখতে পাই, কিছু অসাধু লোক খাবারে ভেজাল মিশিয়ে তা বিক্রি করছেন। আর যারা খাবার প্রস্তুত ও পরিবেশনের সাথে সম্পৃক্ত তাদেরও স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে ধারণা নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘জাতির পিতার আদর্শকে ধারণ করে জনকল্যাণে আমরা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচি গ্রহণ করেছি। কোভিড-১৯ বাস্তবতায় ‘ফুড হাইজিন’ একটি জরুরি বিষয়। খাবার প্রস্তুত ও পরিবেশনের সাথে যারা জড়িত তারা যাতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে খাবার প্রস্তুত ও পরিবেশন করতে পারেন সেজন্য আমাদের এই উদ্যোগ।’

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি মো. আব্দুস সামাদ বলেন, ‘মুজিববর্ষের অঙ্গীকার হবে সকলের জন্য স্বাস্থ্যসম্মত খাবার সুনিশ্চিত করা। এই প্রশিক্ষণের ফলে ১০০ জন ফুডকর্মী আরও দক্ষতার সঙ্গে স্বাস্থ্যসম্মত খাবার প্রস্তুত ও পরিবেশন করতে পারবেন। এতে দেশে আরও দক্ষ কর্মীর সংখ্যা যেমন বাড়বে তেমনি দেশের মানুষ স্বাস্থ্যসম্মত খাবার উপভোগ করতে পারবেন।

বাপকের ব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) মো. জিয়াউল হক হাওলাদারের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন এনএইচটিটিআই-এর অধ্যক্ষ আখলাকুর রহমান ও কোর্স প্রশিক্ষক জাহিদা বেগম।