• বৃহস্পতিবার   ২৮ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৩ ১৪২৭

  • || ০৫ শাওয়াল ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
১০৯

মৃতদেহ পোড়ানো ছাই দিয়ে তৈরি স্যুপ পান করে এই জাতি

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১৫ মার্চ ২০২০  

মানুষের জন্ম যেমন স্বাভাবিক তেমনই মৃত্যুও স্বাভাবিক। এটি প্রকৃতিরই নিয়ম। মৃত্যুর পর ধর্ম, জাতি বা দেশ ভেদে শেষকৃত্যের ধরনে পার্থক্য থাকে। তবে ব্রাজিল ও ভেনিজুয়েলার সীমান্ত ঘেঁষে অ্যামাজন রেইনফরেস্টে বসবাসকারী ইয়ানোমামি উপজাতির শেষকৃত্য অনুষ্ঠানের কথা শুনলে সবাইকেই অবাক হতে হয়।  

ইয়ানোমামিরা বিশ্বাস করে, মৃত্যুর পরেও জীবনে রয়েছে। মৃতব্যক্তিও সবকিছু টের পায়। তাদের বিশ্বাস শত্রু জাতির তান্ত্রিকরা পিশাচ পাঠিয়ে মৃত্যু ঘটায়। এ কারণেই মৃতের আত্মার শান্তির বিধানে এবং শত্রুর নির্মূলে এক অদ্ভুত রীতি পালন করে থাকে তারা। মৃতদেহ পুড়িয়ে বিশেষ ধরনের স্যুপ পান করে এই জাতিরা।

 

স্যুপ

স্যুপ

এক্ষেত্রে তারা বিশেষ এক পদ্ধতি অবলম্বন করে। পোড়ানোর পূর্বে তারা দেহটি বসবাসের জায়গার অদূরেই বনের মধ্যে ৩০ থেকে ৪৫ দিন ঢেকে রেখে আসে। এরপর মৃতদেহ থেকে হাড় সংগ্রহ করে পোড়ানোর জন্য প্রস্তুত করে। পচানো কলার তৈরি স্যুপের সঙ্গে মৃতদেহ পোড়া ছাই মেশানো হয়। এরপর এই জাতির সবাই তা পান করে। 

অবশিষ্ট থাকলে অন্য গোত্রের কাছে পাঠিয়ে দেয় যাতে একবারেই শেষ হয়ে যায়। মৃত দেহের ছাই দ্বারা তৈরি স্যুপ পুরো গোত্র একসঙ্গে খাওয়ার নিয়ম থাকলেও এর ব্যতিক্রমও আছে। শত্রু দ্বারা খুন হলে শুধু গোত্রের মেয়েরাই এই স্যুপ পান করে এবং সেটা সফলভাবে প্রতিশোধ গ্রহণের রাতে। ইয়ানোমামিরা বিশ্বাস করে তাদের গোত্রের মৃতদের ভস্ম খাওয়ার মৃত ব্যক্তির শক্তি ধারণ করা সম্ভব। সেইসঙ্গে মৃতের আত্মা শান্তিও পায়।

ইত্যাদি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর