সোমবার   ২১ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৫ ১৪২৬   ২১ সফর ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
৩৬৮

যেসব জিনিস বাথরুমে রাখা যাবে না

প্রকাশিত: ৬ ডিসেম্বর ২০১৮  

দৈনন্দিন জীবনের বেশ কিছু জিনিস প্রয়োজনের খাতিরে বাথরুমে রাখা হয়। তোয়ালে, টুথপেস্ট, টুথব্রাশ, নানা রকম প্রসাধনী ক্রিম ইত্যাদি বাথরুমে রাখা হয়। এগুলো বাথরুমে রাখা উচিত কি না? সে সম্পর্কে জেনে নিন-

১. তোয়ালে বাথরুমে রাখা একদমই উচিত নয়। কারণ বাথরুমের আর্দ্রতা অনেক বেশি থাকে। তাই তোয়ালে যখন ভিজে থাকে তখন ফাঙ্গাস বংশ বিস্তার করতে পারে। যা সংক্রমণ রোগের কারণ হতে পারে। তাই গোসলের পর তোয়ালে বাইরে মেলে দিন। যদি অতিরিক্ত কোন তোয়ালে থাকে তবে তা আলমারিতে রাখাই ভালো।

২. টুথব্রাশ তো বাথরুমেই থাকে! কিন্তু এটা একেবারেই ঠিক নয়। সব সময় টুথ ব্রাশের ক্যাপ লাগানো থাকে না। টয়লেট ফ্লাশ করার সময় অনেক জীবাণু বের হয়ে আসে। পরে সেগুলো বাসা বাঁধে টুথব্রাশে। যার কারণে মুখে নানা রকম রোগ হতে পারে। মুখ থেকে জীবাণু শরীরের ভেতর গিয়েও নানা রকম রোগ হয়। তাই ব্রাশ কখনো বাথরুমে রাখবেন না।

৩. অনেকেরই অভ্যাস রয়েছে বাথরুমে গিয়ে বই পড়ার। তারপর সেই বইটা বা ম্যাগাজিন পাশের কোনো একটি টলির মধ্যে রেখে দেয়া হয়। এতে বই বা কাগজগুলো খুব তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যায়। কারণ বাথরুমে আর্দ্রতা অনেক বেশি থাকে।

৪. অনেকে গয়না বাথরুমে খুলে রেখে মুখ পরিষ্কার করে থাকেন। তারপর বাথরুম থেকে পানি ঝারা দিয়ে ঐগুলো নিয়ে আসা হয়। এতে যে গহনাগুলো নষ্ট হতে তা একবারও ভাবি না। আর্দ্রতা ও পানি এ দুটো উপাদানে গহনা তাড়াতাড়ি নষ্ট হবে।বিশেষ করে বিভিন্ন পাথরের গহনা বা রঙ বেরঙের গহনাগুলো বাথরুমে কিছুতেই রাখা উচিত নয়।

৫. অনেকেই বাথরুমে মেকাপ ব্রাশ বা মেকাপ রিমুভিং ব্রাশগুলো রাখার অভ্যাস রয়েছে। কিন্তু এটা কখনো উচিত নয়। টুথব্রাশের মতো মেকাপের ব্রাশেও বিভিন্ন রকম জীবাণু বাসা বাঁধতে পারে। এ কারণে ত্বকে নানারকম সমস্যা দেখা দিবে, ত্বকে র‌্যাশ বের হতে পারে ও বলিরেখা দেখা দিতে পারে।

৬. পারফিউম অনেকেই বাথরুমে রেখে দেন। গোসলের পর পাউফিউম স্প্রে করে বেরিয়ে আসেন। এটা কখনো করবেন না। কারণ পারফিউম বাথরুমে রাখলে খুব তাড়াতাড়ি পারফিউমের ঘ্রাণ নষ্ট হয়ে যাবে। বাথরুমে একটা উত্তাপ থাকে। আর পারফিউম কখনো সূর্যের আলোতে ও উত্তাপের মধ্যে রাখা যাবে না। নরমাল তাপমাত্রায় পারফিউম রাখা উচিত।

৭. অনেকেই নেইপলিশ বাথরুমে রাখেন। গোসলের পর বসে ধীরে ধীরে নখে লাগিয়ে নেন। নেইলপলিশ বাথরুমে রাখলে আঠা আঠা ও শক্ত হয়ে যাবে। ভালো ভাবে নখে লাগানো যাবে না। যার ফলে নেইল পলিশ দিলে মোটা হয়ে যাবে ও এটা নখ থেকে উঠে যাবে।

৮. রেজার ও রেজার ব্লেড ছেলেরা বাথরুমে রেখে থাকেন। এটাও উচিত নয়। এতে রেজার ও ব্লেডে খুব তাড়াতাড়ি মরিচা পড়বে। আর রেজার ব্যবহারের পর সব সময় শুকিয়ে রাখতে হবে তাহলে মরিচা পড়বে না। ওয়াটারপ্রুফ ছাড়া কোনো ষ্টীলের জিনিস বাথরুমে বেশি সময় রাখা উচিত নয়।

৯. কোনো ধরণের ওষুধও বাথরুমে রাখা যাবে না। কারণ এগুলো বাথরুমে রাখলে খুব তাড়াতাড়ি নষ্ট হয়ে যাবে।