রোববার   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬   ১০ রবিউস সানি ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
৪২

লবণের দাম বাড়ালে জেল-জরিমানা : বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১৯ নভেম্বর ২০১৯  

দেশে লবণের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, অপপ্রচার চালিয়ে অসাধু ব্যবসায়ীরা সুযোগ নিচ্ছে। কোনো ব্যবসায়ী লবণের দাম বাড়ালে বাজার মনিটর করে তাদের জেল-জরিমানা করতে ভোক্তা অধিকারের মহাপরিচালককে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) বিকাল ৪ টায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে তিনি এ এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, লবণের বিষয়ে ব্যবসায়ীরা অবাস্তব সুযোগ নিচ্ছে শুধু একটা গুজব ছড়িয়ে। এ বিষয়ে আমি খবর নিয়েছি। লবণ চাষিদের সুবিধার্থে সরকার ইমপোর্ট বন্ধ রেখেছে। তারপরেও লবণের দাম বাড়ার কোনো কারণ নেই।

তিনি বলেন, দেশে বর্তমানে সাড়ে ৬ লাখ মেট্রিক টনেরও বেশি ভোজ্য লবণ মজুদ রয়েছে। প্রতি মাসে আমাদের ভোজ্য লবণের চাহিদা থাকে কম-বেশি ১ লাখ মেট্রিক টন। অন্যদিকে লবণের মজুদ আছে সাড়ে ৬ লাখ মেট্রিক টন। সে হিসাবে লবণের কোনো সংকট হওয়ার প্রশ্নই ওঠে না।

এ সময় তিনি পাশে উপস্থিত ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণের মহাপরিচালক বাবলু কুমার সাহাকে বাজার মনিটরিং করার নির্দেশনা দেন। তাকে উদ্দেশ্য করে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, লবণের বিষয়ে আমার নির্দেশ আপনারা বাজার মনিটর করেন। যাকে জেল দোয়ার দরকার দেন, যাকে জরিমানা করা দরকার করেন। বাজারের দামটা যেন ঠিক থাকে।

এদিকে মঙ্গলবার দুপুরে কক্সবাজারে একটি হোটেলে বাংলাদেশ লবণ মিল মালিক সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভায় বাংলাদেশ লবণ মিল মালিক সমিতির সভাপতি নুরুল কবির বলেন, লবণ নিয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চাচ্ছে একটি মহল। গতকাল থেকে সিলেট সহ দেশের কিছু কিছু অঞ্চলে লবণের সংকট দেখিয়ে অতিরিক্ত মূল্য আদায় করা হচ্ছে।

লবণ মিল মালিকেরা জানিয়েছেন, বাংলাদেশে আগামী ২ মাসের পর্যাপ্ত লবণ মজুদ আছে। শুধু কক্সবাজার অঞ্চলেই মজুদ আছে ৩ লাখ মেট্রিক টন লবণ। যা দেশের লবণের চাহিদা পূরণের জন্য যথেষ্ট।

এই বিভাগের আরো খবর