• বুধবার   ২৭ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১২ ১৪২৭

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ

সঙ্গিনীর মন জয় করতে মাকড়সাও পেখম তুলে নাচে! (ভিডিও)

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১৩ মে ২০২০  

 

 

মাকড়সা নামটি শুনলে অনেকেই ভয় পেয়ে যান। তবে এমন একটি মাকড়সা রয়েছে যেটাকে দেখলে তার প্রতি নিশ্চিত ভালোবাসা তৈরি হবে। কারণ মাকড়সা বলতে আমরা সাধারণত বিদঘুটে কদাকার দেখতে একটি প্রাণীকে ভেবে থাকি। তবে এই মাকড়সাটির বেলায় তা ঠিক ভিন্ন।

‘পিকক স্পাইডার’ যা বাংলা অর্থের ‘ময়ূর মাকড়সা’, যার পশ্চাৎদেশ রংবেরঙের। আর সঙ্গিনীকে আকর্ষণ করার জন্য এরা তাদের পশ্চাৎদেশ দুলিয়ে দুলিয়ে নাচ দেখিয়ে প্রেম নিবেদন করে। ঠিক যেমন মেঘ দেখলেই ময়ূরের পেখম তুলে নেচে নেচে যৌন আবেদন প্রকাশ করে। এই মাকড়সার চোখ ঠিক তেমনি। 

উজ্জ্বল রঙের ছোট্ট এই মাকড়সাদের বলা হয় ‘পিকক স্পাইডার’। তাদের দৈর্ঘ্য একজন মানুষের বুড়ো আঙুলের নখের সমান। ময়ূরের গায়ে যেমন বাহারি রঙা পেখম দেখা যায়, ঠিক তেমনি নকশা রয়েছে এই মাকড়সাগুলোর শরীরে। তবে নারী নয়, কেবল পুরুষ মাকড়সাদের দেহেই এমন রঙের ব্যবহার দেখা যায়। কেন জানেন? 

কারণ সঙ্গিনীর মন জয় করা। কত পাখি আছে যারা নাচ দেখিয়ে গান শুনিয়ে নানান রকম অঙ্গভঙ্গি করে নিজের সঙ্গিনীকে কাছে ডেকে নেয়। ক্ষুদ্র নিরীহ এই জন্তুটির এমন রং-বেরঙের শরীর নিয়ে নাচ দেখানো দেখলে যে কেউ এই প্রাণীটির প্রেমে পড়ে যাবে একথা সত্য। এ প্রাণীটির বৈজ্ঞানিক নাম মারাটুস ভেসপা। এটা জাল বোনে না, লাফিয়ে লাফিয়ে চলে। তবে সঙ্গিনীর মন জয়ের কাজে কেবল তাদের সৌন্দর্যই যথেষ্ট নয়। রীতিমত নেচে সঙ্গিনীর মন জয় করতে হয় তাদের। এদের পেটে এমন রঙিন অংশ রয়েছে দুটি। বিভিন্ন রকম অঙ্গভঙ্গি করে এরা রঙের বাহারে সঙ্গিনীকে আকৃষ্ট করার চেষ্টা করে।

মানুষের জন্য মোটেও ক্ষতিকর নয় এই নাচুনে মাকড়সাগুলো। এরা দেখতে সুন্দর, রঙিন ও আকর্ষণীয়। মনের মতো নাচ দেখিয়ে স্ত্রী মাকড়সার মন ভোলাতে না পারলে জীবন হারাতে হয় তাকে। কারণ, সঙ্গিনী মাকড়সাটি তখন পুরুষ মাকড়সাটিকে আস্ত খেয়ে ফেলে। আবার এদের মধ্যে কেউ কেউ অন্য মাকড়সার সঙ্গে লড়াই করার সময়ে এই রঙের মাধ্যমে ভয় দেখাতে চায়।

>>>ভিডিও<<<

ইত্যাদি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর