মঙ্গলবার   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ২ ১৪২৬   ১৭ মুহররম ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
৫৮

সোনালী আঁশে হাসছে চাষি

প্রকাশিত: ২২ আগস্ট ২০১৯  

 


রাজশাহীর পুঠিয়ায় পাট কাটা, জাগ দেয়া, আঁশ ছাড়ানো, শুকানোয় ব্যস্ত সময় পার করছে চাষিরা। এ বছর সোনালী আঁশ হিসেবে খ্যাত পাটের দাম বাড়ায় হাসি ফুটেছে চাষিদের মুখে।

উপজেলা কৃষি অফিসের তথ্য অনুযায়ী পুঠিয়ায় এবার লক্ষমাত্রার প্রায় তিনগুণ বেশি পাটের আবাদ হয়েছে। তিন হাজার ১৬০ হেক্টর জমিতে পাট হয়েছে ১১ হাজার ৬০ মেট্রিক টন।

পাট চাষিরা জানান, তাদের সুদিন ফিরছে। অনুকূল আবহাওয়ায় পাটের আবাদ ভালো হয়েছে। চাহিদা অনুযায়ী দামও বেড়েছে। প্রতিমণ পাট বিক্রি হচ্ছে ১৭০০-২০০০ টাকায়।

পাট ব্যবসায়ী শফিকুল ইসলাম বলেন, গত বছর থেকেই পাটে ভালো দাম পাওয়া যাচ্ছে। বানেশ্বরসহ বিভিন্ন হাটে নতুন পাট উঠছে। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ক্রেতারা আসছেন। স্থানীয় জুটমিল মালিকরাও পাট কিনছেন। আমরাও ভালো দাম পাচ্ছি। সিন্ডিকেট না থাকলে দাম আরো বাড়তো।

পাট চাষি আবুল ফজল বলেন, গত বছর ভালো দাম পাওয়ায় এবার দুই বিঘা বেশি জমিতে পাট চাষ করেছি। বিঘাপ্রতি ১০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। আশা করি শেষ পর্যন্ত পাটের দাম আরো বাড়বে।

উপজেলা কৃষি অফিসার মনজুরে মাওলা বলেন, অনুকূল আবহাওয়া থাকায় এবার পাটের আবাদ ভালো হয়েছে। রোগ-পোকামাকড়ের আক্রমণও অনেক কম ছিলো। ভালো মানের পাট পেয়ে ক্রেতারাও বেশি দামে কিনছেন। পুঠিয়ার পাট চাষিদের সুদিন ফিরেছে।

এই বিভাগের আরো খবর