• সোমবার   ১৯ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ৬ ১৪২৮

  • || ০৬ রমজান ১৪৪২

পিরোজপুর সংবাদ

সোমবার থেকে ঢাবিতে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ৭ মার্চ ২০২১  

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষা অংশ নিতে আবেদন গ্রহণ শুরু হচ্ছে সোমবার (৮ মার্চ)। 

অনলাইনের মাধ্যমে প্রার্থীদের ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া ৮ মার্চ বিকেল ৪টা থেকে শুরু হয়ে চলবে ৩১ মার্চ রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত। একইসাথে আবেদন শেষে টাকা জমা দেয়ার শেষ তারিখ ০১ এপ্রিল বৃহস্পতিবার রাত ১১:৫৯টা পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয়েছে। 

অনলাইনে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ওয়েবসাইটে (admission.eis.du.ac.bd) গিয়ে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে আগ্রহীরা আবেদন করতে পারবেন। 

এবারর ভর্তি পরীক্ষা ঢাকাসহ দেশের ৮টি বিভাগীয় শহরে অনুষ্ঠিত হবে। ফলে বেড়ে যাবে পরীক্ষা গ্রহণের খরচ। তাই বাড়ানো হয়েছে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ফি। গতবার যেখানে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন ফি ছিল ৪৫০ টাকা সেখানে চলতি শিক্ষা বর্ষে আবেদন ফি বাড়ানো হয়েছে ২০০ টাকা। ফলে এবার আবেদন করতে লাগবে ৬৫০ টাকা। ঢাকার বাইরে পরীক্ষা নেয়া, যাওয়া-আসা, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বা কলেজে পরীক্ষা কেন্দ্রের জন্য আলাদা খরচের কারণে আবেদন ফি বাড়ানো হয়েছে।  

আবেদন যোগ্যতা : 

ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীকে অবশ্যই ২০১৫ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে উচ্চ মাধ্যমিক (এসএসসি বা সমমান) পরীক্ষায় পাস করতে হবে। শুধুমাত্র ২০২০ সালের উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণরা আবেদন করতে পারবেন। বিভিন্ন ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের জন্য ভিন্ন ভিন্ন যোগ্যতার প্রয়োজন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে আবেদনের যোগ্যতায় প্রতিবারের থেকে কিছুটা বাড়ানো হয়েছে। বিজ্ঞান বিভাগে (‘ক’ ইউনিটে) যেখানে পুর্বের বছরগুলোতে ছিল মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) প্রাপ্ত জিপিএ’র যোগফল ৮.০, সেখানে এবার এই বিভাগের জন্য আবেদন করতে ন্যূনতম পয়েন্ট লাগবে ৮.৫০ (আলাদাভাবে জিপিএ ৩.৫০)। কলা অনুষদভুক্ত ‘খ’ ইউনিটের জন্য আগের বছরগুলোতে ৭.০ লাগলেও এবার তা বেড়ে ন্যূনতম ৮.০০ লাগবে (আলাদাভাবে ৩.০) ও বাণিজ্য অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিটে ৭.৫ এর পরিবর্তে এবার ন্যূনতম লাগবে ৮.০০ (আলাদাভাবে ৩.৫)। 

সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিটের জন্য যে যেই বিভাগ থেকে আবেদন করবে সে অনুযায়ী জিপিএ থাকতে হবে। এছাড়া চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের জন্য জিপিএ-দ্বয়ের যোগফল ন্যূনতম ৭.০ (আলাদাভাবে জিপিএ ৩.০) থাকতে হবে।