রোববার   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬   ১০ রবিউস সানি ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
৩২

২০২১ সালের মধ্যে ১০০০ উদ্যোক্তা তৈরিতে সহায়তা দেবে সরকার

প্রকাশিত: ১৯ নভেম্বর ২০১৯  

 


তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, সরকার চায় তরুণরা শুধু চাকরির পেছনে না ছুটে সফল উদ্যোক্তা হোক। একজন উদ্যোক্তা সফল হলে বহু কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। এজন্য সরকার ২০২১ সালের মধ্যে এক হাজার উদ্যোক্তা তৈরিতে সহায়তা করবে।

মঙ্গলবার রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনে 'বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি তরুণ উদ্যোক্তা পৃষ্টপোষক' কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, বাংলাদেশে এ পর্যন্ত তথ্যপ্রযুক্তি খাতে এক মিলিয়নের বেশি চাকরির সুযোগ হয়েছে। আমাদের টার্গেট এখাতে আগামী চার বছরে এক মিলিয়ন কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা। এ লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

সরকারের পরিকল্পনা ও তথ্যপ্রযুক্তি খাতের অপার সম্ভাবনার বিষয়টি উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ ধরনের আয়োজনের মাধ্যমে তথ্যপ্রযুক্তি সংশ্লিষ্ট নতুন উদ্ভাবক- উদ্যোক্তারা দিক-নির্দেশনা পাবেন। যার ফলে তারা বাংলাদেশকে ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে ও ২০৪১ এর মধ্যে উন্নত দেশের কাতারে পৌঁছানোর ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির চেয়ারম্যান কাজী জামিল আজহার। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ইউএস মার্কেট এক্সেসের প্রধান নির্বাহী সিইও ক্রিস বারি। বিশেষ অতিথি উপস্থিত ছিলেন গ্রামীনফোনের প্রধান নির্বাহী (সিইও) মাইকেল প্যাট্রিক ফোলি।

মূল প্রবন্ধে ক্রিস বারি বলেন, আমি এ পর্যন্ত ২৭টি দেশে ১৫০টির অধিক এ ধরনের অনুষ্ঠান পরিচালনা করে উদ্ভাবক- উদ্যোক্তাদের জন্য ৬০৫ মিলিয়ন মার্কিল ডলার সংগ্রহে প্রত্যক্ষ সহায়তা করেছি।

এসময় তিনি উদ্যোক্তা হিসেবে সফল হওয়ার উপায়, ব্যবসা সম্প্রসারণ, মূল্যায়ন, ব্যবসায়ে লাগাতার প্রচেষ্টা ও অধ্যবসায়ের গুরুত্ব, ব্যবসা প্রদর্শনীর আয়োজন ইত্যাদি বিষয়ে অংশগ্রহণকারী উদ্যোক্তাদের বুট ক্যাম্পের মাধ্যমে প্রশিক্ষিত করার পরিকল্পনার কথা উল্লেখ করেন।

এই বিভাগের আরো খবর