শনিবার   ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০   ফাল্গুন ১৭ ১৪২৬   ০৫ রজব ১৪৪১

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
মন্টেভিডিওতে রাষ্ট্রপতি,কাল যোগ দিবেন ক্ষমতা হস্তান্তর অনুষ্ঠানে করোনা ভাইরাস নিয়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বঙ্গবন্ধু অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ দিয়েছেন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মশা যেন ভোট খেয়ে না ফেলে, নতুন মেয়রদের প্রধানমন্ত্রী তাপস-আতিককে শপথ পড়ালেন প্রধানমন্ত্রী এক ঘণ্টায় করোনা ভাইরাস শনাক্ত করা সম্ভব: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শিশুদেরকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করতে হবে : স্পিকার ব্যাংক বন্ধ হলে ১ লাখ টাকা পাওয়ার তথ্য গুজব : কেন্দ্রীয় ব্যাংক নারীরা নিকাহ রেজিস্ট্রার হতে পারবে না: হাইকোর্ট ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের সুদ হার আগের মতো ১৭ মার্চ থেকে : অর্থমন্ত্রী
১১০

৩য় শ্রেণী পর্যন্ত পরীক্ষা বাতিলের সব প্রক্রিয়া চূড়ান্ত

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী ১ম থেকে ৩য় শ্রেণি পর্যন্ত পরীক্ষা বাতিলের সব প্রক্রিয়া ইতোমধ্যেই চূড়ান্ত হয়েছে। আগামী বছর ১০০ টি স্কুলে পরীক্ষা মূলকভাবে এ পদ্ধতি কার্যকর করা হবে বলে জানিয়েছেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী। এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে শিক্ষাবিদরা বলছেন, সরকারের এমন সিদ্ধান্তে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম আরো সমৃদ্ধ হবে । এমন নির্দেশনায় শিশু শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি অভিভাবকরাও নিজেদের চাপমুক্ত মনে করছেন।

সমাজে সন্তানের একাডেমিক ভালো ফলাফলের প্রতিযোগিতায় নেমেছেন প্রায় সব অভিভাবকই। শৈশবে এমন পড়ার চাপে নূব্জ প্রায় প্রতিটি শিক্ষার্থী। তবে সম্প্রতি ১ম শ্রেণি থেকে পরীক্ষা বাতিলের ঘোষণায় খুশি অভিভাবকরা।

সরকারের এমন সিদ্ধান্তকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন শিক্ষাবিদরা। এ পদ্ধতি বাস্তবায়নে শিক্ষকদের প্রতিশ্রুতি ও আন্তরিক সদিচ্ছা প্রয়োজন বলেও মনে করছেন তারা।

ড. এম অহিদুজ্জামান বলেন, আমরা যারা শিক্ষক, তাদের আন্তরিকতা প্রয়োজন। আগামী বছর থেকেই এ পদ্ধতি প্রথমে ১০০ স্কুলে চালু করা হবে এ জন্য শিক্ষকদেরকে এ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে বলে জানান, প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেন, আমরা এটাকে একটা পাইলট প্রজেক্টের মতো করে দেখছি। পরীক্ষা না থাকলেও শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করা হবে আর সে মূল্যায়ন করবেন শ্রেণী শিক্ষকরাই।

স্কুলে একজন শিক্ষার্থী তার দিনের অর্ধেক সময় কাটায়। তাই ৩য় শ্রেণী পর্যন্ত পরীক্ষা বাতিল সরকারের এমন সিদ্ধান্ত একজন শিক্ষার্থীর শৈশবে তার মেধা ও মনন বিকাশে এবং বেড়ে উঠতে সহায়ক হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এই বিভাগের আরো খবর