• শুক্রবার   ৩০ জুলাই ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১৪ ১৪২৮

  • || ১৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

পিরোজপুর সংবাদ

সৌদিতে নারী গৃহকর্মীর নিরাপত্তায় সহায়তা চাইলেন রাষ্ট্রদূত

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ৩০ জুন ২০২১  

সৌদি আরবে কর্মরত বাংলাদেশি নারী গৃহকর্মীদের নিরাপত্তায় সহায়তা চেয়েছেন দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। এছাড়া হাসপাতালের মর্গে অভিবাসীদের মৃতদেহ সংরক্ষণের ফি মওকুফ ও ফাইনাল এক্সিটের বিষয়টি দ্রুত সম্পন্নের আহ্বান জানান তিনি।

মঙ্গলবার (২৯ জুন) সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশের গভর্নর প্রিন্স সউদ বিন নায়েফ আল সউদের সঙ্গে সাক্ষাতকালে এ সহায়তা কামনা করেন রাষ্ট্রদূত।

সৌদিতে কর্মরত নারী গৃহকর্মীরা বিভিন্ন কারণে গৃহকর্তার বাসা থেকে পালিয়ে পুলিশের কাছে আশ্রয় গ্রহণ করতে আসে। পালিয়ে আসা এ সকল নারী গৃহকর্মীদের ডিপোর্টেশন সেন্টার অথবা সেইফ হাউজে জায়গা প্রদানের জন্য সহযোগিতা চান রাষ্ট্রদূত। এ বিষয়ে যথাযথ সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন গভর্নর।

এছাড়া, দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশের হাসপাতালের মর্গে যেসব অবৈধ অভিবাসীদের মৃতদেহ সংরক্ষিত রয়েছে তার ফি মওকুফের অনুরোধ জানান রাষ্ট্রদূত। এ সকল অবৈধ অভিবাসীদের মৃতদেহ দেশে পাঠানোর জন্য দূতাবাসের সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকার পরও হাসপাতালের ফি’র জন্য মরদেহ দেশে পাঠানো অথবা সৌদি আরবে দাফনের ক্ষেত্রে জটিলতা সৃষ্টি হয়।

করোনাকালে অনেক শ্রমিক সৌদি আরবে চাকুরিচ্যুত হয়ে অবৈধ হয়ে পড়েছে। এ সকল অবৈধ অভিবাসীরা দেশে ফিরে যাওয়ার জন্য ফাইনাল এক্সিটের আবেদন করেছেন, কিন্তু তাদের ফাইনাল এক্সিট প্রদান ধীরগতিতে সম্পন্ন হওয়ায় তারা দেশে ফিরতে পারছে না। এ অবস্থায় অবৈধ অভিবাসীদের দেশে ফিরে যাওয়ার বিষয়টি দ্রুত সম্পন্ন করার জন্য গভর্নরকে অনুরোধ জানান রাষ্ট্রদূত জাবেদ পাটোয়ারী।

এ সময়ে সম্প্রতি এক বাংলাদেশিকে মৃত্যুদণ্ড থেকে রেহাই দেওয়া ও বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর জন্য গভর্নরের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

তিনি পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশের বিভিন্ন জেলে প্রায় ২৪৫ জন বাংলাদেশি বন্দী রয়েছে উল্লেখ করে তাদের মধ্যে কেউ ক্ষমার যোগ্য হলে তাকে ক্ষমা প্রদান করার জন্য গভর্নরকে অনুরোধ করেন। এছাড়া সৌদির পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ দাম্মামে অবস্থিত বাংলাদেশ কমিউনিটির স্কুলের স্থায়ী ভবন নির্মাণের জন্য জমি ক্রয়ের ব্যাপারে রাষ্ট্রদূত গভর্নরের সহায়তা কামনা করেন।

একই দিন পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশের পুলিশ প্রধান মেজর জেনারেল আবদুল্লাহ বিন মোহাম্মদ আল কুরাইশ এবং কিং ফাহাদ পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড মিনারেল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট ড. মুহাম্মাদ আল সাজ্ঞাফের সাথে বৈঠকে মিলিত হন রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

রাষ্ট্রদূত এ সময় বাংলাদেশী গৃহকর্মীদের যেকোন বিপদে সহায়তা করার অনুরোধ জানান। পুলিশ প্রধান বাংলাদেশি গৃহকর্মীদের সহায়তার আশ্বাস দেন ও বাংলাদেশি অভিবাসীদের প্রশংসা করেন।

এছাড়া ড. মুহাম্মাদ আল সাজ্ঞাফের সাথে বৈঠকে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য বৃত্তি বৃদ্ধির প্রস্তাব এবং যৌথ গবেষণার প্রস্তাব দেন রাষ্ট্রদূত।

এরপর বিকেলে দাম্মামে বসবাসরত বাংলাদেশি অভিবাসীদের সাথে মতবিনিময় করেন মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। এ সময় তিনি তাদের বিভিন্ন সমস্যার কথা শোনেন ও দ্রুত সমাধানের আশ্বাস দেন।