• মঙ্গলবার ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৩ ১৪৩০

  • || ১৫ শা'বান ১৪৪৫

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
জনগণের আস্থা অর্জন করলে ভোট পাবেন: জনপ্রতিনিধিদের প্রধানমন্ত্রী জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে উন্নয়ন কাজের ব্যবস্থাটা আমরা নিয়েছিলাম কেউ যেন ভুয়া ক্লিনিক-চিকিৎসকের দ্বারা প্রতারিত না হন: রাষ্ট্রপতি স্থানীয় সরকার বিভাগে বাজেট বরাদ্দ ৬ গুণ বেড়েছে: প্রধানমন্ত্রী স্থানীয় সরকারকে মাটি-মানুষের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক গড়তে হবে শবে বরাতের মাহাত্ম্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের কাজে আত্মনিয়োগের আহ্বান সমাজের অসহায়, দরিদ্র মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসতে হবে দেশের মানুষের জন্য ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে বিচারকদের ক্ষমতার অপব্যবহার রোধকল্পে খেয়াল রাখার আহ্বান মিউনিখ সফরে বাংলাদেশের অঙ্গীকার বলিষ্ঠরূপে প্রতিফলিত হয়েছে

নাশকতার মামলায় বিএনপির ১৬ নেতাকর্মীর কারাদণ্ড

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২৭ নভেম্বর ২০২৩  

পাঁচ বছর আগে রাজধানীর উত্তরখান এলাকায় পুলিশকে উদ্দেশ্য করে ককটেল ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও হামলার মামলায় বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের ১৬ নেতাকর্মীর আড়াই বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (২৭ নভেম্বর) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জসিমের আদালত পৃথক দুই ধারায় তাদের কারাদণ্ড দেন। এছাড়া প্রত্যেক আসামির ৫ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরো ৩ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- সরকার রফিকুল ইসলাম মুকুল, আহসান হাবীব মোল্লা, রুস্তম আলী, শরীফুল আলম ওরফে সবুজ আলম, রায়হানুল বাসেদ ওরফে আব্দুল হাই, ইসতিয়াকুল বাছেদ, আনোয়ার হোসেন সরকার, আরিফ উদ্দিন এনামুল, মো. রুহুল আমিন, মজিবুর রহমান, মো. মোস্তফা, নাসিমুল ইসলাম নাসিম, শামীম, আসাদুল ইসলাম, সাব্বির সরকার, ইসমাইল হোসেন। এছাড়া জাকির নামে একজনকে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় খালাস দেওয়া হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ৩ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ৯টার দিকে উত্তরখান থানাধীন স্নানঘাট তেরমুখ ঘাট ব্রিজের পাশে বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা জমায়েত হয়ে নাশকতার উদ্দেশ্যে গোপন বৈঠক করছিল। এসময় খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ হাজির হলে তাদের উদ্দেশ্যে ককটেল ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়। এসময় উত্তরখান পুলিশের দুই সদস্য আহত হন। এ ঘটনার পরদিন উত্তরখান থানায় উপ-পরিদর্শক আশিকুর রহমান দেওয়ান বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে ২০১৯ সালের ৩০ জুন আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ। মামলার বিচার চলাকালে ছয়জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন আদালত।