• রোববার ১৪ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • চৈত্র ৩০ ১৪৩০

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
আ.লীগ ক্ষমতায় আসে জনগণকে দিতে, আর বিএনপি আসে নিতে: প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা রাষ্ট্রপতির দেশবাসী ও মুসলিম উম্মাহকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী কিশোর অপরাধীদের মোকাবেলায় বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ব্রাজিলকে সরাসরি তৈরি পোশাক নেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর জুলাইয়ে ব্রাজিল সফর করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী আদর্শ নাগরিক গড়তে প্রশংসনীয় কাজ করেছে স্কাউটস: প্রধানমন্ত্রী স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় স্কাউট আন্দোলনকে বেগবান করার আহ্বান তিন দেশ সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

আমেরিকার প্রলোভনে ভারতে নিয়ে পতিতাবৃত্তি, মামলা

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২ এপ্রিল ২০২৪  

আমেরিকায় ভালো বেতনে চাকুরির প্রলোভন দেখিয়ে ভারতে নিয়ে স্ত্রীকে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করার অভিযোগে দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করেছেন স্বামী। সোমবার (১ মার্চ) বরিশাল মানব পাচার অপরাধ ট্রাইব্যুনালে মামলা করা হয় বলে বেঞ্চ সহকারী মো. তুহিন মোল্লা জানিয়েছেন।

ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মঞ্জুরুল হোসেন মামলা তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য বরিশাল মহানগর পুলিশের কোতয়ালি মডেল থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলার বাদী মো. মিলন আকন বরিশাল নগরের রূপাতলী মোল্লা সড়ক এলাকার বাসিন্দা।

আসামিরা হলেন- বরিশাল নগরের ২৫ নম্বর ওয়ার্ড রাঁড়ি বাড়ির মোতালেব হোসেনের ছেলে আলমগীর হোসেন খোকন ও তার ভাই মো. রোকন।

মামলার বরাতে বেঞ্চ সহকারী তুহিন মোল্লা জানান, মিলন আকনের অজ্ঞাতে তার স্ত্রী ও কিশোর ছেলেকে আমেরিকা নিয়ে ভালো বেতনে চাকুরি দেওয়ার প্রলোভন দেয়া হয়। প্রলোভনে সাড়া দিয়ে রাজি হয় স্ত্রী ও ছেলে।

তিনি আরও জানান, বাদী মামলায় উল্লেখ করেছেন, গত ২৩ মার্চ জরুরি কাজে তিনি ঢাকা যান। ঢাকা গিয়ে স্ত্রী  ও ছেলের মোবাইল ফোনে কল দিয়ে বন্ধ পান। পরে প্রতিবেশীকে খবর নিতে বাসায় পাঠান। প্রতিবেশী বাসায় গিয়ে তালাবদ্ধ দেখতে পেয়ে জানালে তিনি ঢাকা থেকে ফিরে আসেন। বাসায় ফিরে এসে দেখতে পান ৭ ভরি স্বর্ণালংকার, কাপড় ও নগদ সাড়ে তিন লাখ টাকাসহ স্ত্রী ও সন্তান নেই।

তুহিন মোল্লা আরও জানান, গত ২৬ মার্চ ১৬ বছর বয়সী সন্তান ফিরে এসে জানায়, আমেরিকা নেওয়ার কথা বলে তাদেরকে বেনাপোল দিয়ে কলকাতায় নিয়ে যায়। সেখানে একটি হোটেলে নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন কক্ষে তাদের আটকে রাখা হয়। পরে তার মাকে পতিতাবৃত্তি করতে মারধর করে। ছেলে প্রতিবাদ করলে তার হাত পা ভেঙে ভিক্ষা বৃত্তিতে নামানোর হুমকি দেয়। এরপর ছেলে কৌশলে পালিয়ে দেশে ফিরে আসে।  

বাদীর ভুক্তভোগী স্ত্রী বর্তমানে ভারতে অজ্ঞাতস্থানে রয়েছেন বলে জানান তিনি।