• শুক্রবার   ১৯ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ৪ ১৪২৯

  • || ২০ মুহররম ১৪৪৪

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন জাতিসংঘ মানবাধিকার প্রধান বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর আ. লীগের নেতারা কী করেছিলেন: প্রধানমন্ত্রী সুশীল বাবু মইনুল খুনিদের নিয়ে দল গঠন করে: প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু হত্যায় জড়িতরা আজ মানবাধিকারের কথা বলে: প্রধানমন্ত্রী ভারত পারলে আমরাও রাশিয়া থেকে তেল কিনতে পারবো: প্রধানমন্ত্রী চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডে হতাহতের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর শোক ‘ষড়যন্ত্র প্রতিহত করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচারের রায় কার্যকর করেছি’ খবরদার আন্দোলনকারীদের ডিস্টার্ব করবেন না: প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতার মৃত্যু নেই প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে বঙ্গবন্ধু আমাদের রোল মডেল

কায়দা করে সোনা এনে শাহজালালে ধরা

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২৬ জুন ২০২২  

জামার মধ্যে করে বিশেষ কায়দায় ১ কেজি ৩৩৬ গ্রাম সোনা এনে ধরা পড়েছে নূর হোসেন নামে এক যাত্রী। শনিবার ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাকে আটক করে কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর। নূর হোসেন দুবাই থেকে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি প্লেনে করে ঢাকায় নামেন।  

সংস্থাটি জানায়, কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের কাছে খবর আসে যে দুবাই থেকে আসা দুবাই-ঢাকা রুটের এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট নং ইকে-৫৮২-এ একজন যাত্রী চোরাচালানকৃত স্বর্ণ বহন করছে। প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত সার্কেলের উপ-পরিচালক সানজিদা খানমের নেতৃত্বে কাস্টমস গোয়েন্দার একটি দল শাহজালাল বিমানবন্দরের বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান করে।  

গ্রীন চ্যানেল অতিক্রমকালে সন্দেহভাজন একজন ব্যক্তিকে শনাক্ত করা হয়। পরবর্তীতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে স্বর্ণ পরিবহনের কথা অস্বীকার করে। কিন্তু গোয়েন্দা দল দেহ তল্লাশির সময় ঐ যাত্রীর গায়ের জামার মধ্যে শক্ত কিছুর অস্তিত্ব টের পায়। এরপর যাত্রীর গায়ের জামা, প্যান্ট, আন্ডার গার্মেন্টস ভালোভাবে পরীক্ষা করে বিশেষ উপায়ে দুই স্তর বিশিষ্ট ফেব্রিক্স দ্বারা তৈরি এসব বস্ত্রের মধ্যে পেস্ট সদৃশ স্বর্ণের উপস্থিতি নিশ্চিত হয়। অভিনব উপায়ে পরিধান করা শার্ট, প্যান্ট ও আন্ডার গার্মেন্টসের দুই স্তরের মাঝে বিশেষ আঠা দিয়ে লাগিয়ে এসব স্বর্ণ চোরাচালানের চেষ্টা করা হয়।  

যাত্রীর কাছে প্রাপ্ত মোট স্বর্ণের পরিমাণ ১৩৩৬ গ্রাম যার মধ্যে পেস্ট সদৃশ্য (লিকুইড) স্বর্ণ ১০০৩ গ্রাম, স্বর্ণবার ২৩৩ গ্রাম ও স্বর্ণালঙ্কার ১০০ গ্রাম এবং উদ্ধারকৃত স্বর্ণের বাজার মূল্য আনুমানিক ৯৩,৫২,০০০ টাকা (তিরানব্বই লাখ বাহান্ন হাজার টাকা মাত্র)।  

সংস্থাটি আরও জানায়, অভিযুক্ত যাত্রী নুর হোসেনের বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইন ১৯৭৪ এবং The Customs Act 1969 এর বিধান অনুযায়ী মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং তাকে বিমানবন্দর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।