• শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১০ ১৪৩০

  • || ১২ শা'বান ১৪৪৫

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্টের অভিনন্দন প্রতিবেশীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রেখেই সামুদ্রিক সম্পদ আহরণের আহ্বান সমুদ্রসীমার সম্পদ আহরণ করে কাজে লাগানোর তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর ২১ বছর সমুদ্রসীমার অধিকার নিয়ে কেউ কথা বলেনি: শেখ হাসিনা হঠাৎ টাকার মালিক হওয়ারা মনে করে ইংরেজিতে কথা বললেই স্মার্টনেস ভাষা আন্দোলন দমাতে বঙ্গবন্ধুকে কারান্তরীণ রাখা হয় : সজীব ওয়াজেদ ভাষা আন্দোলনের পথ ধরেই বাংলাদেশের মানুষ স্বাধিকার পেয়েছে অশিক্ষার অন্ধকারে কেউ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী একুশ মাথা নত না করতে শেখায়: প্রধানমন্ত্রী একুশে পদক তুলে দিলেন প্রধানমন্ত্রী

সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদকসহ গ্রেপ্তার ৪

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ৩০ নভেম্বর ২০২৩  

সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বী আহসানসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৬টি ককটেল সদৃশ বস্তু ও ১২টি বাশের লাঠি জব্দ করা হয়েছে।

বুধবার (২৯ নভেম্বর) রাত ৮টার দিকে নগরীর কুমারপাড়া এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আলী মাহমুদ।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- সিলেটের সিলাম মোগলাবাজার থানার পশ্চিমপাড়ার মৃত আব্দুল মতিনের ছেলে সিলেট মহানগর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মো. ফজলে রাব্বী আহসান (৩০), সিলাম টিকরপাড়ার মৃত শের আলীর ছেলে দক্ষিণ সুরমা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক সালেহ আহমেদ (২৮), দক্ষিণ সুনামগঞ্জের বীরগাঁওয়ের মৃত আঙ্গুর মিয়ার ছেলে ওয়াহিদ আহমদ (১৯) ও নগরের শিবগঞ্জ সোনারপাড়া নবারুন ১২০ নং বাসার সেলিম আহমদের ছেলে রেদুয়ান আহমদ রাব্বি (২৪)।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কোতোয়ালী মডেল থানাধীন ঝর্নারপাড় কাজী জালাল উদ্দিন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে মশাল মিছিল করে ছাত্রদল, যুবদল, সেচ্ছাসেবকদলের নেতাকর্মীরা। এসময় কোতোয়ালি থানার ওসির নেতৃত্বে একদল পুলিশ তাদের ধাওয়া করলে তারা পুলিশের দিকে ইট পাটকেল ছুড়ে মারে। এতে তিনজন পুলিশ সদস্য আহত হন ও পুলিশের একটি গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। পরে পুলিশ শর্টগানের চার রাউন্ড গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এসময় পুলিশ ধাওয়া করে চারজনকে আটক করে।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার আজবাহার আলী শেখ জানান, আটককৃতদের নামে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। চলমান হরতাল অবরোধ কর্মসূচিতে তারা বেশ কিছু জায়গায় কর্মসূচি পালনের নামে নাশকতা করে জনমনে ভয় ভীতি সৃষ্টি করে ত্রাস সৃষ্টি করে আসছিল। জনগণের জানমাল রক্ষায় সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের একাধিক টিম তাদেরকে গ্রেপ্তারের জন্য মাঠে কাজ করেছে। আজ কোতোয়ালি মডেল থানার একদল পুলিশ তাদের ধাওয়া করে ধরতে সমর্থ হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ৬টি ককটেল সদৃশ বস্তু ও বাশের লাঠি উদ্ধার করে। তাদের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।