• শুক্রবার   ৩০ জুলাই ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১৪ ১৪২৮

  • || ১৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

পিরোজপুর সংবাদ

মাইগ্রেনের যন্ত্রণা থেকে রেহাই মিলবে যেসব খাবারে

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২০ জুন ২০২১  

মাথাব্যথা আর মাইগ্রেন এক নয়। যদিও অনেকেই এই দুটিকে একসঙ্গে গুলিয়ে ফেলেন। আসলে মাইগ্রেন হলো বিশেষ ধরনের তীব্র মাথাব্যথা। এই সমস্যা কখনো বংশগত হয়ে থাকে, আবার কখনো টেনশন বা ভয় থেকেও জন্ম নেয়। অনেক সময় সাইনাস থেকেও মাইগ্রেনের সমস্যা হতে দেখা যায়।

এই ব্যথা মাথার যেকোনো এক পাশ থেকে শুরু হয়ে ক্রমশ বাড়তে থাকে, যা মারাত্মক কষ্টকর হয়ে ওঠে। তাই একে ‘আধ-কপালি’ ব্যথাও বলা হয়ে থাকে। অনেক সময় ব্যাথায় চোখ দিয়ে পানি পড়ে। প্রচণ্ড মাথাব্যথার পাশাপাশি বমি বমি ভাবও দেখা দেয়। হরমোনগত বিভেদের কারণে মেয়েদের মধ্যে এ রোগ বেশি দেখা যায়। সাধারণত ২৫ থেকে ৩০ বছর বয়সে এই রোগের শুরু হয়। মাইগ্রেনের যন্ত্রণা অত্যন্ত কষ্টদায়ক এবং দীর্ঘস্থায়ী। যার আছে মাইগ্রেন, সেই বোঝে এই ব্যথার কষ্ট কতটা। কারো কারো ক্ষেত্রে মাইগ্রেনের সমস্যা একটানা কয়েকদিন পর্যন্ত চলে।

এই রোগ থেকে মুক্তি পেতে অনেকে নানা ধরণের ওষুধ খান। কিন্তু সবসময় ওষুধ না খেয়ে বাড়িতে কিছু খাদ্য খাওয়ার মাধ্যমে উপকারিতা পাওয়া যেতে পারে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক সেই সব খাদ্য সম্পর্কে বিস্তারিত-

>> সাধারণ মাথাব্যথা এবং মাইগ্রেনের ক্ষেত্রে কফি বা চা পান করা উপকারী হয়।

>> বাদাম খান। কাজুবাদাম, ওয়ালনাট ম্যাগনেশিয়াম সমৃদ্ধ, তাই মাইগ্রেনের সমস্যা দূর করতে এগুলো খেতে পারেন।

>> মাইগ্রেন থেকে মুক্তি পেতে লেবু ও আদার রস একসঙ্গে বা আদা চা খেতে পারেন। এছাড়া আদা কুচি করে চিবালেও উপকার পাওয়া যায়।

>> মাইগ্রেনের ব্যথায় ম্যাগনেসিয়াম খুবই কার্যকর। সবুজ শাকসবজিতে পর্যাপ্ত পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম পাওয়া যায়। শস্য, সামুদ্রিক খাবার এবং গমেও প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম থাকে। মাইগ্রেনের ব্যথা কমাতে এই সব খাবার অত্যান্ত উপকারী।

>> মাছে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড এবং ভিটামিন-ই পাওয়া যায়। এই দুটি উপাদানই মাইগ্রেনের ব্যথা নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে। তাই মাছ খাওয়াও এক্ষেত্রে অত্যন্ত উপকারী।

>> মাইগ্রেনের সমস্যায় ফ্যাট ফ্রি দুধ পান করা খুবই উপকারী। দুধে ভিটামিন-বি পাওয়া যায়, যা কোষকে এনার্জি যোগায়। তাই ডায়েটে অবশ্যই দুধ রাখা উচিত।

>> মাইগ্রেনের যন্ত্রণা দ্রুত কমাতে আঙুর বা আঙুরের রস খেতে পারেন। অল্প জলে আঙুরের রস মিশিয়ে খেতে পারলে মাইগ্রেনের যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে পারেন।

>> ব্রকলিতে প্রচুর পরিমাণে ম্যাগনেসিয়াম পাওয়া যায়, যা মাইগ্রেনের ব্যথা থেকে মুক্তি দিতে পারে। তাই আপনার যদি এই সমস্যা থেকে থাকে তাহলে ব্রকলি খান।