• বৃহস্পতিবার ২৫ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ১১ ১৪৩১

  • || ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫

পিরোজপুর সংবাদ

গোসলের সময় প্রস্রাব করার অভ্যাস থাকলে বিপদ

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১১ মার্চ ২০২৩  

গোসলের আগে প্রস্রাব করার ঘটনা স্বাভাবিক হতে পারে। তবে কিছু মানুষ আছেন যারা গোসলের সময় অর্থাৎ শরীরে পানি দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই মূত্রত্য়াগ করেন। অর্থাৎ, যাদের এই অভ্যাস আছে তারা কিন্তু একসঙ্গে দুইটি কাজ করেন। তবে অনেকেরই হয়তো জানা নেই, গোসলের সময় প্রস্রাবের অভ্যাস হতে পারে স্বাস্থ্যের জন্য বিপজ্জনক। কেন গোসলের সময় প্রস্রাব বিপজ্জনক?
জি নিউজের প্রতিবেদেন উল্লেখ করা হয়েছে, চিকিৎসকদের ধারণা, গোসলের সময় প্রস্রাব করা নারীদের জন্য বেশি ক্ষতিকর। এর প্রধান কারণ হলো, নারীরা যখন দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করার চেষ্টা করেন, তখন তারা মূত্রাশয় সম্পূর্ণ খালি করতে পারেন না। ফলে শ্রোণী বা পেলভিক পেশীতে বেশি চাপ পড়ে ও তা ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে যায়। অন্যদিকে পুরুষদের প্রোস্টেট গ্ল্য়ান্ড থাকায় তারা দাঁড়ানো অবস্থায়ও ঠিকমতো প্রস্রাব করতে পারেন। যদিও নারী-পুরুষ যেই হন কারো উচিত নয় গোসলের করতে করতে প্রস্রাব করা।  

আপনি যখন গোসলের সময়  পানির কুলকুল শব্দের সঙ্গে প্রস্রাব করেন তখন কিন্তু তা অভ্যাসে পরিণত হয়। এক্ষেত্রে আপনি কিন্তু মূত্রাশয়কে শিক্ষা দিচ্ছেন যে, এটি পানির শব্দ পেলেই সংকুচিত হবে। আর এই কারণে অভ্যাসবশত পানির শব্দ পেলেই এ ধরনের মানুষজন যেখানে সেখানে মূত্রত্যাগ করতে পারেন। বিশেষজ্ঞের মতে, এই অভ্যাস পেলভিক ফ্লোর ডিসফাংশনের কারণ হতে পারে। এ ধরনের ব্যক্তিদের কোনো শব্দ শুনলেই প্রস্রাব হয়ে যেতে পারে।  

বিশেষজ্ঞের মতে, বাথরুম আর টয়লেট দুইটো আলাদা স্থানে হওয়া ভালো। তবে গোসলের সময় আপনি যদি শাওয়ারের সঙ্গে প্রস্রাব করেন তাহলে গোসলের স্থানটি কিন্তু নোংরা হবে। অথচ গোসলের জায়গা পরিষ্কার রাখা উচিত সবারই।