• বুধবার   ২৮ জুলাই ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১২ ১৪২৮

  • || ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

পিরোজপুর সংবাদ

ভালো ছাতা চেনার কিছু সহজ কৌশল

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২২ জুন ২০২১  

চলছে বর্ষাকাল। আর বর্ষাকাল মানেই যখন তখন বৃষ্টি। যদিও বৃষ্টি সবার নিকটই প্রিয়। কিন্তু এই মৌসুমে বিড়ম্বনায়ও পড়তে হয়। তাইতো বৃষ্টির দিনে সবচেয়ে ভালো বন্ধু ছাতা। তবে ছাতা কেবল বৃষ্টির দিনেরই বন্ধু নয়, তীব্র রোদেও ছাতা উপকারী। তাইতো রোদ-বৃষ্টি-ঝড় প্রকৃতির এই রদবদলে নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে ছাতা সঙ্গে রাখা ভালো।

তবে ছাতা সঙ্গে থাকলেই যে আপনি সুরক্ষিত তা কিন্তু নয়। এর জন্য আপনার সঙ্গে থাকা ছাতাটি হতে হবে ভালো ও মজবুত। কিন্তু চাইলেই সব সময় ভালো ছাতা পাওয়া যায় না। দেখেশুনে তারপর কিনতে হয়। ভালো ছাতা চেনারও কিছু উপায় রয়েছে। যে বিষয়গুলোর প্রতি লক্ষ্য রাখলে আপনাকে অন্তত ঠকতে হবে না। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক ভালো ছাতা চেনার উপায়গুলো-

>> ছাতা তৈরি হয় বিভিন্ন ধরনের কাপড় দিয়ে। তবে প্যারাসুটের কাপড় অথবা বেলপেকের কাপড় দিয়ে তৈরি ছাতাগুলো ভালো মানের। কেননা এই ধরনের কাপড় সহজে ছিদ্র হয় না এবং নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা কম থাকে। এছাড়া বেশ কিছু ছাতা রয়েছে যেগুলোতে দুই স্তরের কাপড় ব্যবহার করা হয়। এক্ষেত্রে রোদ-বাদলের দিনগুলোতে ছাতার বাইরের কাপড় গরম কিংবা ভেজা থাকলেও ভেতরের কাপড় একই রকম থেকে যায়।

>> ছাতার গুরুত্বপূর্ণ উপাদান শিক। শিক যদি কম থাকে অথবা নিম্নমানের হয় তাহলে হালকা বৃষ্টি কিংবা তুফানে ছাতা উল্টে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। তাই শিক যতো বেশি থাকবে ছাতা তত মজবুত হবে। শিকের ক্ষেত্রে আরেকটি বিষয় হলো স্টিলের শিক ভেজা থাকলে মরিচা পড়ে নষ্ট হয়ে যায়। স্টেইনলেস স্টিলের শিক, অ্যালুমিনিয়ামের শিকগুলো বেশ উন্নত মানের। তাছাড়াও শিকের সঙ্গে ফাইবার সংযুক্ত করে দেওয়া ছাতাগুলোও টেকসই। এই ধরনের শিকগুলোতে সহজে মরিচা পড়ে না।

>> একটি ছাতা ব্যবহার করে তখনই আরাম পাওয়া যায় যখন ছাতার হাতল মজবুত থাকে এবং ধরে তৃপ্তি হয়। কিছু ছাতা রয়েছে যেগুলোতে কাঠের হাতল ব্যবহার করা হয়। এ ধরনের হাতল ভিজে গেলে নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে। প্লাস্টিকের হাতলগুলো টেকসই, পাতলা এবং মজবুত।