• বুধবার ১৯ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৫ ১৪৩১

  • || ১১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে কোরবানির পশু বেচাকেনা এবং ঘরমুখো মানুষের নিরাপত্তার নির্দেশ গ্লোবাল ফান্ড, স্টপ টিবি পার্টনারশিপ শেখ হাসিনাকে বিশ্বনেতৃবৃন্দের জোটে চায় শিশুর যথাযথ বিকাশ নিশ্চিতে সকল খাতকে শিশুশ্রমমুক্ত করতে হবে শিশুশ্রম নিরসনে প্রত্যেককে আরো সচেতন হতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ব্যবসায়িদের প্রতি নিয়ম নীতি মেনে কার্যক্রম পরিচালনার আহ্বান বিনামূল্যে সরকারি বাড়ি গৃহহীনদের আত্মমর্যাদা এনে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর জিসিএ লোকাল অ্যাডাপটেশন চ্যাম্পিয়নস অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ প্রধানমন্ত্রীকে বদলে যাওয়া জীবনের গল্প শোনালেন সুবিধাভাগীরা আশ্রয়ণের ঘর মানুষের জীবন বদলে দিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

মঠবাড়িয়ায় ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ খামারীদের মাঝে গো-খাদ্য বিতরণ

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ৫ জুন ২০২৪  

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় সদ্য বয়ে যাওয়া ঘূর্নিঝড় রিমাল এর তান্ডবে ক্ষতিগ্রস্থ গরু খামারীদের মাঝে গো-খাদ্য সহায়তা বিতরণ করা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সরকারের পক্ষ থেকে মঙ্গলবার (৪ জুন) বিকেলে উপজেলা পরিষদ চত্তরে উপজেলার ১১ টি ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্থ ১৮০ জন খামারীকে এ গো-খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়। উপস্থিত প্রত্যেক খামারীকে এক বস্তা (২৫ কেজি) গো-খাদ্য দেয়া হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুল কাইয়ূম, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মোহা. নূর আলম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মিলন তালুকদার, প্রেসক্লাব সভাপতি মিজানুর রহমান মিজু, সাংবাদিক ইউনিয়ন সভাপতি জামাল এইচ আকন, সাধারণ সম্পাদক জুলফিকার আমীন সোহেল প্রমুখ।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুল কাইয়ূম জানান, ঘূর্ণিঝড় রিমালে গবাদি পশু খামারীগণ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে এবং গো-খাদ্যের ঘাটতিও দেখা দিয়েছে। এ জন্যই সরকারি উদ্যোগে ১৮০ জন খামারীকে গো খাদ্য প্রদান করা হযেছে। যদিও প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল, তাও তারা কিছুটা হলেও পুষিয়ে নিতে পারবে। তিনি আরও বলেন, আশা করি আরো সরকারি সহায়তা পেলে খামারীরা উপকৃত হবেন।

উল্লেখ্য, গত ২৬ মে রবিবার সন্ধ্যা থেকে সোমবার বিকাল পর্যন্ত প্রবল ঘূণিঝড় রিমালের তা-বে উপজেলার ১১ টি ইউনিয়নের খামরীদের প্রায় ১৪ হাজার গরু ক্ষতিগ্রস্থ হয়। টানা বর্ষণ ও অতি জোয়ারে উপকূলের গ্রামগুলি প্লাবিত হওয়ায় গবাদী পশুর চারন ভূমি ও গো-খাদ্য নষ্ট হয়ে যায়।