• রোববার   ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ৯ ১৪২৯

  • || ২৭ সফর ১৪৪৪

পিরোজপুর সংবাদ

মঠবাড়িয়ায় চাঞ্চল্যকর স্বামী হত্যা মামলায় স্ত্রী কারাগারে

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ৭ সেপ্টেম্বর ২০২২  

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় স্বামী হত্যা মামলার আসামী স্ত্রী সাজেদা বেগম মনি (২১) কে কারাগারে পাঠানের আদেশ দিয়েছেন আদালত। গ্রেপ্তারকৃত সাজেদা বেগম মনিকে মামলার তদন্তকারি কার্মকর্তা মঙ্গলবার (৬ সেপ্টম্বর) দুপুরে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে হাজির করলে মঠবাড়িয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যজিস্ট্রেট আদালত এর বিচারকি হাকিম মো. কামরুল আজাদ তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

উল্লেখ্য- নিখোঁজের ১১ দিন পর হেলাল হোসেন (২৬) নামের এক যুবকের অর্ধগলিত লাশ গত ৪ সেপ্টেম্বর রোববার রাতে উপজেলার ধানীসাফা গ্রামে একটি বাড়ির পিছনে বাগানের ডোবা থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত হেলাল পিরোজপুর জেলার ইন্দুরকানী উপজেলার সাউথখালী গ্রামের আব্দুল কাদের গাজীর ছেলে। এ ঘটনায় নিহতের বোন মিনারা বেগম (৩৮) বাদি হয়ে ভাবী সাজেদা বেগম মনির বিরুদ্ধে ৫ সেপ্টেম্বর সোমবার দুপুরে মঠবাড়িয়া থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা মঠবাড়িয়া থানার এস আই মো. তাজেল ইসলাম পলাতক সাজেদা বেগম মনিকে স্বরূপকাঠি উপজেলা শহর থেকে সোমবার বিকেলেই গ্রেপ্তার করেন।

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, হেলাল ধানীসাফা গ্রামের তার স্ত্রী সাজেদা বেগমকে নিয়ে একটি ভাড়া বাসায় থাকতো এবং একটি ভবনের কেয়ারটেকরের পাশাপাশি ইলেক্ট্রনিক্স মেকানিক হিসেবে কাজ করতো। তাদের তাবাসসুম নামের দেড়ে বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। বিভিন্ন সময় স্ত্রীর সাথে হেলালের পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ঝগড়া-বিবাদ হতো। কিছুদিন আগেও হেলালের সাথে তার স্ত্রীর টাকা নিয়ে ঝগড়া হয়। গত ২৫ আগস্ট পারিবারিক বিরোধের জের ধরে রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়াঝাঁটি ও মারামারি হয়। পরে রাতে হেলাল নিখোঁজ হন। স্থানীয় ভাবে অনেক খোঁজাখুজি করেও তাকে পাওয়া যাচ্ছিল না। ৪ সেপ্টেম্বর রোববার সন্ধ্যার আগে এক নারী শাক তুলতে গিয়ে স্থানীয় আলম বেপারীর বাড়ির পিছনে একটি ডোবায় অর্ধগলিত অবস্থায় হেলালের লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়।

মঠবাড়িয়া থানার ওসি মুহা. নূরুল ইসলাম বাদল জানান, নিহতের লাশ ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। রিপোর্ট হাতে পেলে হত্যাকন্ডের ধরণ বোঝা যাবে। গ্রেপ্তারকৃত সাজেদা বেগম মনিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে সোপার্দ করা হয়েছে।