• শুক্রবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৩ ১৪২৯

  • || ০৩ রজব ১৪৪৪

পিরোজপুর সংবাদ

মঠবাড়িয়ায় অবৈধ ইটভাটা গুড়িয়ে দিলো প্রশাসন

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১৮ জানুয়ারি ২০২৩  

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি : সংবাদ প্রকাশের পর পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় উপজেলার উত্তর সোনাখালী গ্রামে লোকালয়ে ও স্কুল সংলগ্ন প্রভাবশালী শাহ আলম গাজীর সেই ইটভাটা গুড়িয়ে দিলো প্রশাসন। এর পরপরই বুখাইতলা বান্ধবপাড়া গ্রামে কবির হাওলাদারের আরও দুই ইটভাটা গুড়িয়ে দেয় প্রশাসন। মঙ্গলবার বিকেলে পিরোজপুর জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ তারিকুল আলম অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করেন।

জানা গেছে, উপজেলার বাদুরতলী গ্রামের মৃত. সৈজদ্দিন গাজীর ছেলে প্রভাবশালী শাহ আলম গাজী উত্তর সোনাখালী গ্রামে লোকালয়ে ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সন্নিকটে গত বেশ কয়েক বছর ধরে কাঠ দিয়ে অবৈধ ইটভাটা (পাঁজা) পুড়িয়ে আসছিলো। এ ব্যপারে স্থানীয় বাসিন্ধা আঃ মালেক গাজীর ছেলে মো. শাহ জালাল গাজী এলাকাবাসির অনুরোধে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েও কোন প্রতিকার পাচ্ছিলনা। সর্বশেষ বরিশাল বরিশাল বিভাগীয় পরিবেশ অধিদপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিলে পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক মোঃ আবদুল হালিম সংশ্লিষ্ট প্রশাসককে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য চিঠি দেয়। অপর দিকে অবৈধ ইটভাটা (পাঁজা) বন্ধের দাবীতে মানবন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশও করেছিলো বিক্ষুব্দ এলাকাবাসি।

এদিকে উপজেলার বুখাইতলা বান্ধবপাড়া গ্রামের প্রভাবশালী কবির হাওলাদার লোকালয় ও ফসলী জমিতে পৃথক দুটি স্থানে অবৈধ ভাবে ইটভাটা পুড়িয়ে আসছে। স্থানীয়রা অবৈধ ভাটা বন্ধের দাবী করে আসছিলো। মঙ্গলবার প্রশাসন ভাটাগুলো গুড়িয়ে দেয়ায় স্থানীয়দের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে।

মঠবাড়িয়া উপজেল্ ানির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ঊর্মি ভৌমিক বলেন, অবৈধ আট ভাটার বিরুদ্ধে পূর্বের একাধিক বার মোবাইল কোট করা হয়েছিলো। জনবল সংকটে ব্যবস্থা নিতে দেরী হওয়ায় জেলা প্রশাসকের নির্দেশে পিরোজপুর জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এর নেতৃত্বে ৩টি ইটভাটায় পানি দিয়ে কাঁচা ইট গুলিয়ে দেয়া হয়েছে। অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে প্রশাসনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।