• মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ১ ১৪৩১

  • || ০৮ মুহররম ১৪৪৬

পিরোজপুর সংবাদ

প্রবাসীর স্ত্রী ৮ মাসের অন্তস্বত্তা -অভিযুক্ত যুবক কারাগারে

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি :

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় এক সৌদি প্রবাসীর স্ত্রী দুই সন্তানের জননী ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার ঘটনায় মামলা হয়েছে। উপজেলার কচুবাড়িয়া গ্রামের ভুক্তভোগী ওই নারী বাদী হয়ে প্রতিবশী মাকসুদকে আসামী করে মঠবাড়িয়া থানায় একটি ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন। থানা পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করেছেন। গ্রেপ্তারকৃত মাকসুদুর রহমান ওরফে মাসুদ রানা খলিফা ওই কচুবাড়িয়া গ্রামের মৃত নূরুজ্জামান ওরফে রত্তন খলিফার ছেলে।

মামলা সূত্রে জানাগেছে, গত পাঁচ বছর পূর্বে ওই নারীর স্বামী সৌদি আরবে যান। স্বামী বিদেশ যাওয়ার পর থেকেই মাকসুদ তাকে বিভিন্ন সময় প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। তিনি প্রথমে উক্ত প্রস্তাবে রাজি না হলেও পরবর্তীতে তাকে বিয়ে করবে মর্মে প্রতিশ্রুতি দিলে তিনি প্রলোভনে রাজি হন। এরপর ২০১৯ সালের ০৪ মে মাকসুদ গোপনে তার বসত ঘরে প্রবেশ করে তাকে পুনরায় বিয়ের প্রলোভন দিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণ করেন। এর পর থেকে চলতি বছরের ০৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রতিনিয়ত বিভিন্ন সময় মাকসুদ ওই নারীর বসত ঘরে শারীরিক সম্পর্ক করে। এতে গত কয়েক মাস পূর্বে তার শারীরিক অবস্থার পরিবর্তন দেখা দিলে তিনি হাসপাতালে পরীক্ষা নিরীক্ষা করে জানতে পারেন তিনি অন্তঃসত্ত্বা। পরে বিষয়টি মাকসুদকে জানান এবং তাকে বিয়ে করার জন্য বলেন। কিন্তু অভিযুক্ত মাকসুদ তার গর্ভের সন্তান নষ্ট করার জন্য বলেন। ওই নারী এজাহারে আরো উল্লেখ করেন মাকসুদ তার সরলতার সুযোগ নিয়ে সংসার ও জীবন শেষ করে দিয়েছেন।
এদিকে অভিযুক্ত মাকসুদুর রহমান তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ মিথ্যা ও ষড়যন্ত্র মূলক বলে দাবী করে বলেন, জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে এ মিথ্যে অভিযোগ করা হয়েছে।

মঠবাড়িয়া থানার ওসি মোঃ কামরুজ্জামান তালুকদার মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গ্রেপ্তারকৃত মাকসুদকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। তাছাড়া পিরোজপুর সিভিল সার্জন কার্যালয়ে পাঠিয়ে ওই নারীর ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে।