সোমবার   ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯   ভাদ্র ৩১ ১৪২৬   ১৬ মুহররম ১৪৪১

মমতার বিকল্প মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন, দ্বিধায় বিজেপি

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত : ০৫:৪৪ পিএম, ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ বুধবার

 


 লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির উত্থান খুব ভালোভাবেই ঘটেছে। এক লাফে ৪২টির মধ্যে ১৮টি আসন দখল করতে পেরেছে। তৃণমূল কংগ্রেস পেয়েছে ২৪টি। শাসকদল তৃণমূলের চেয়ে মাত্র চারটি আসন কম পেয়েছে বিজেপি। এই উত্থানের পর বিজেপি পশ্চিমবঙ্গ দখলের স্বপ্নে বিভোর। সে পরিপ্রেক্ষিতেই রাজ্যে জোড় আলোচনা বিজেপি ক্ষমতায় এলে কে হতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী? অর্থাৎ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিকল্প কে হবেন বিজেপির?

রাজ্য বিজেপির থিঙ্ক ট্যাঙ্ক মুকুল রায় বা রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে নিয়ে একেবারেই ভাবতে নারাজ বিজেপির দিল্লি নেতৃত্ব। তাদের ভাবনায় ‘খুজতে হবে নতুন মুখ’। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের পরিকল্পনা নতুন এমন এক মুখকে সামনে আনতে হবে, যিনি হতে পারেন মমতার বিকল্প। এ নিয়ে তারা যথেষ্ট ধন্দেও আছে।

২০২১ সালে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন। তা ঘিরে বিজেপির কেন্দ্র একেবারে পাখির চোখ করে রেখেছে রাজ্যটিতে। তাই এর নাম দিয়েছে ‘মিশন বাংলা’। যেকোনোভাবে ক্ষমতা দখল করতে উদ্যোগী মোদী-অমিত শাহ টিম। তাদের উদ্দেশ্য, বিজেপি স্রষ্টা তথা বাংলায় জন্ম নেওয়া শ্যমাপ্রসাদ মুখার্জীকে এবার বিধানসভা জয় উৎসর্গ করা। তাই সরাসরি রাজ্য বিজেপিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, কোনো সিদ্ধান্ত বা পরিকল্পনা রাজ্য বিজেপি যেনো না করে। প্রতি মাসে রিপোর্ট ও পরিকল্পনা জানাতে হবে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে। দিল্লি নেতৃত্ব ঠিক করে দেবে, কী হবে মিশন বাংলার অ্যাকশন প্ল্যান।

সেই পরিকল্পনা অনুযায়ী মমতার বিকল্প মুকুল রায় বা দিলীপ ঘোষকে ভাবতে নারাজ কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। তবে জানা যাচ্ছে, চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে কে হবেন মুখ্যমন্ত্রী মুখ, সেই কাজটি সেরে ফেলতে পারে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। আপাতত বেশকিছু নাম নিয়ে কাটাছেঁড়া চলছে। বেশ কয়েকটি নারী নাম ঘোরাফেরা করছে। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গেও দফায় দফায় আলাপ-আলোচনা চলছে।

তবে দ্বিধায় যে আছে, সেটা স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে। কারণ রাজ্য বিজেপির এক নেতার কথায়, এ রাজ্যে লড়াই তো তৃণমূল কংগ্রেস ভার্সেস বিজেপি নয়। লড়াই মমতা ভার্সেস বিজেপি!

তাই পশ্চিমবঙ্গ দখলের জন্য কোনো কিছুই খাটো করে দেখছে না বিজেপি। একেবারে আটঘাট বেঁধেই নামছে। যে করেই হোক ‘মিশন বাংলা’ সাকসেস করতেই হবে। টিম প্ল্যান নিয়ে সামনেই মাঠে নামবে বিজেপি।