• রোববার ১৪ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • চৈত্র ৩০ ১৪৩০

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
আ.লীগ ক্ষমতায় আসে জনগণকে দিতে, আর বিএনপি আসে নিতে: প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা রাষ্ট্রপতির দেশবাসী ও মুসলিম উম্মাহকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী কিশোর অপরাধীদের মোকাবেলায় বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ব্রাজিলকে সরাসরি তৈরি পোশাক নেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর জুলাইয়ে ব্রাজিল সফর করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী আদর্শ নাগরিক গড়তে প্রশংসনীয় কাজ করেছে স্কাউটস: প্রধানমন্ত্রী স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় স্কাউট আন্দোলনকে বেগবান করার আহ্বান তিন দেশ সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

মঠবাড়িয়ায় ইমরান গাজী হত্যা মামলার ৪ আসামী কারাগরে

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ইমরান গাজী হত্যা মামলার ৪ আসামীকে কারাগরে প্রেরণের আদেশ দিয়েছেন পিরোজপুর চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাসুম বিল্লাহ। বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে আসামীরা আদালতে উঠলে দীর্ঘ শুনানীর পর তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণের আদেশ দেন। জেল হাজতে প্রেরিত ৪ আসামী হলেন- মঠবাড়িয়া পৌর শহরের সবুজ নগর গ্রামের হারুন অর রশিদের স্ত্রী ফাতিমা বেগম (৩৭), মৃত এরফান ফকিরের ছেলে হারুন অর রশিদ (৪৪), উপজেলার টিকিকাটা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মোশারফ মৃধার ছেলে ফেরদৌস মৃধা ও মুহিদ মৃধা।

নিহত ইমরান গাজীর ভাই আব্দুল্লাহ জানান, তার ছোট ভাই ইমরান মঠবাড়িয়া পৌর শহরের সবুজ নগর গ্রামের আউয়াল শরীফ এর নির্মাণাধীন ভবনের ইলেক্ট্রিশিয়ানের কাজ করতো। ওই ভবনের কেয়ারটেকর ইলিয়াস খলিফার সাথে ভবনের সামনে দোকন হারুন অর রশিদের স্ত্রী দোকানী ফাতিমা বেগমের অবধৈ প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। যা আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলায় ইমরানকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়। অপরদিক স্থানীয় বাসিন্দা হালিম গাজীর সাথে তাদের জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিলো। অপরদিকে কাজের টাকা নিয়ে ইলিয়াস খলিফার সাথে ইমরানের দ্বন্দ তুঙ্গে ওঠে। প্রতিপক্ষরা যোগসাজসে ইমরানকে হত্যার পরিকল্পণা করে। সে ধারাবাহিকতায় গত ১১ অক্টোবর‘২১ সোমবার দুপুরে ইমরানকে হত্যা করে ওই ভবনের তৃতীয় তলায় একটি কক্ষে ফ্যান লাগানোর রডের সাথে লাশ ঝুলিয়ে রাখে।

মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে, পরে থানায় নিয়ে প্রতিপক্ষদ্বারা বিশেষ সুবিধা নিয়ে সুরতহাল রিপোর্ট দায়সাড়া এবং আমার কাছ থেকে সাদা কাগজে স্বাক্ষর নিয়ে থানায় শুধুমাত্র একটি জিডি করেন। তিনি আরও (আব্দুল্লাহ) বলেন, আমি নিয়মিত হত্যা মামলা করতে গেলে মামলা না নিয়ে আমাকে টাকার অফার ও ভয়ভীতি দেখান। পরে তিনি ১৮ অক্টোবর‘২১ আদালতে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। বিজ্ঞ আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পিরোজপুর পিবিআইকে তদন্তে আদেশ দেন। পিবিআই পরিদর্শক মোঃ আহসান কবির  দাফনের ৪৩ দিন পর নিহত ইমরানের লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্ত পূর্বক দীর্ঘ তদন্ত শেষে হত্যাকান্ডে জড়িত ৮ জনের নাম উল্লেখ করে গত ৬ ডিসেম্বর‘২৩ আদালতে প্রতিবেদ দাখিল করেন। বিজ্ঞ আদালত শুনানী শেষে গত ১৩ ডিসেম্বর‘২৩ আসামীদের বিরুদ্ধে গেস্খপ্তারী পরোয়ানার আদেশ দেন। পরে আসামীর গত ৩ জানুয়ারী‘২৪ উচ্চ আদালত থেকে ৬ সপ্তাহের আগাম জামিন আনেন। এ জামিনের মেয়াদ শেষ হলে ৮ আসামীর মধ্যে ৪ আসামী ১৫ ফেব্রুয়ারী‘২৪ বৃহস্পতিবার জামিনের প্রর্থনা করলে বিজ্ঞ আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করেন।

মঠবাড়িয়া থানার ওসি মোঃ শফিকুল ইসলাম বলেন, বাকি আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।