• রোববার ১৪ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • চৈত্র ৩০ ১৪৩০

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
আ.লীগ ক্ষমতায় আসে জনগণকে দিতে, আর বিএনপি আসে নিতে: প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা রাষ্ট্রপতির দেশবাসী ও মুসলিম উম্মাহকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী কিশোর অপরাধীদের মোকাবেলায় বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ব্রাজিলকে সরাসরি তৈরি পোশাক নেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর জুলাইয়ে ব্রাজিল সফর করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী আদর্শ নাগরিক গড়তে প্রশংসনীয় কাজ করেছে স্কাউটস: প্রধানমন্ত্রী স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় স্কাউট আন্দোলনকে বেগবান করার আহ্বান তিন দেশ সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

আগামীতে বিএনপিকে দূরবীক্ষণ যন্ত্র দিয়েও খুঁজে পাওয়া যাবে না-নাছিম

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ২ এপ্রিল ২০২৪  

আওয়ামী লীগ বেপরোয়া হয়ে উঠেছে মির্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীর-এর মন্তব্যের কঠোর সমলোচনা করে আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম এমপি বলেছেন, আওমায়ী লীগের নেতাকর্মীদের গালিগালাজ করায় বিএনপি রসাতলে যাচ্ছে, আগামীতে বিএনপি দূরবীক্ষণ যন্ত্র দিয়েও খুঁজে পাওয়া যাবে না। সোমবার সকালে মাদারীপুরের কুকরাইল এলাকায় নিজ বাসভবনে স্থানীয় নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, ১৭ কোটি মানুষের প্রিয় দল আওয়ামী লীগ। মির্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীরের পূর্ব পুরুষরা পাকিস্তানীদের দালাল ছিল। তারা স্বাধীনতাবিরোধী আলবদরের দালাল ছিল, এটা প্রমানিত। সেই সাম্প্রদায়িক রাজনীতি, বিএনপি এখনো সমর্থণ করে। সেই স্বৈরাচার রাজনীতিকে বিএনপি বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনতে চায়। সেটা কোনদিনই বাস্তবায়ণ হবে না। ঢাকা-১০ আসনের এই সংসদ সদস্য আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম আরো বলেন, বিএনপি বিদেশী প্রভুদের কাছে আত্মসমার্পণ করে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বানচাল করতে চেয়েছিল। দেশের মানুষের প্রতি সম্মানবোধের জায়গাটি ভুলে গিয়ে রাজনৈতিক নেতৃত্ব হারিয়ে দেউলিয়া হয়ে বিদেশীদের কাছে নালিশ করেছে। কোন কোন বিদেশী প্রভুদের পেসক্রিপশন অনুযায়ী আন্দোলনের নামে নাটক করেছে, মানুষকে জ্বালিয়ে পুড়িয়ে মেরেছে।

আ ফ ম নাছিম বলেন, বিএনপি সন্ত্রাস শুরু করেছিল, মানুষকে ভয় দেখানো শুরু করেছিল, তারা সন্ত্রাসী দলে পরিনত হয়েছে। এটা ইতিহাস তাদের-ঐতিহ্য। এই ঐতিহ্যের জায়গায় দাঁড়িয়ে দেশের মানুষকে ভয় দেখিয়েও কোন লাভ হয়নি। বিএনপির এই কর্মকান্ডে মানুষ ভয় না পেয়ে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে আওয়ামী লীগকে ভোট দিয়েছে। এই ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের শান্তিপূর্ণ উপস্থিতি, এটা শুধু বাংলাদেশের মানুষই নয়, সারাবিশ্ব দেখেছে। এই নির্বাচন বানচাল করার চেষ্টা বিএনপির ব্যর্থ হয়েছে।

এ সময় মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পাভেলুর রহমান শফিক খান, পৌর মেয়র খালিদ হোসেন ইয়াদ, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক গোলাম মাওলা আকন্দ, মাদারীপুর সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি বজলুর রহমান মন্টু খানসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।