• রোববার ১৪ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • চৈত্র ৩০ ১৪৩০

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

পিরোজপুর সংবাদ
ব্রেকিং:
আ.লীগ ক্ষমতায় আসে জনগণকে দিতে, আর বিএনপি আসে নিতে: প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা রাষ্ট্রপতির দেশবাসী ও মুসলিম উম্মাহকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী কিশোর অপরাধীদের মোকাবেলায় বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ব্রাজিলকে সরাসরি তৈরি পোশাক নেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর জুলাইয়ে ব্রাজিল সফর করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী আদর্শ নাগরিক গড়তে প্রশংসনীয় কাজ করেছে স্কাউটস: প্রধানমন্ত্রী স্মার্ট বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় স্কাউট আন্দোলনকে বেগবান করার আহ্বান তিন দেশ সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

মোবাইল ফোন চার্জের সময় যেসব বিষয় খেয়াল রাখবেন

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১ এপ্রিল ২০২৪  

মোবাইল ফোনের ব্যাটারিতে হঠাৎ বিস্ফোরণ বা আগুন ধরার কারণে প্রায়ই প্রাণহানি ও আহত হওয়ার ঘটনা ঘটছে। মোবাইল চার্জে থাকাকালীন এ ধরনের ঘটনা বেশি ঘটছে। সেইসঙ্গে ফোনের উপরও বিরাট প্রভাব পড়তে পারে। অসতর্ক থাকার ফলে এ ধরনের ঘটনার মুখোমুখি হতে পারেন যে কেউ। তাই ফোন বিস্ফোরণ বা আগুন লাগার এ ধরনের ঝুঁকি এড়াতে নিজে থেকে সাবধান হতে হবে।

স্মার্টফোনের জন্য সবসময় ভালো কোম্পানির চার্জার কিনুন। কমদামি এবং অপরিচিত কোম্পানির চার্জারগুলোতে চার্জ যেমন ধীরে হয়, ঠিক তেমনই অতিরিক্ত গরমও হয়ে যায়। তাই নিজের ডিভাইসের সঙ্গে দেওয়া চার্জার ও কেবল ব্যবহারই সবচেয়ে নিরাপদ। এতে ফোনে কোনো রকম খারাপ প্রভাব পড়বে না।

চার্জারে যদি কোনো ধরনের সমস্যা দেখা দেয়, যেমন- প্লাগে ফাটল বা আলগা কানেকশন, তারে কোনো রকম চির ধরে যাওয়া। তাহলে তা ঠিক করে ব্যবহার করুন। তানাহলে চার্জার গরম হয়ে আগুন লেগে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

ফোন সম্পূর্ণ চার্জ হয়ে গেলে চার্জার থেকে ফোনটিকে আলাদা করে দিতে হবে। অনেক সময় ফোন চার্জ হওয়ার পরেও চার্জারটি প্লাগ করে রাখা হয়। ১০০ শতাংশ চার্জ হয়ে যাওয়ার পরেই আনপ্ল্যাগ করে নিন। এতে ফোনের উপর খুব বেশি চাপ পড়বে না।

মনে রাখতে হবে, স্মার্টফোনের ব্যাটারির সবচেয়ে বড় শত্রু অতিরিক্ত তাপমাত্রা। বেশি তাপমাত্রায় স্মার্টফোনের ব্যাটারি কমতে শুরু করে। তাই সরাসরি স্মার্টফোন রোদে রাখা ঠিক নয়। অনেক ক্ষেত্রে অতিরিক্ত গরমে ফোন বিস্ফোরণের ঘটনাও ঘটে। ৮৬ ডিগ্রি ফারেনহাইট তাপমাত্রার ওপরে গেলেই ব্যাটারির কার্যকারিতা কমতে শুরু করে। তাই ফোনের অভ্যন্তরীণ তাপমাত্রা যাতে না বাড়ে, সে জন্য খেয়াল রাখতে হবে।