• মঙ্গলবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১২ ১৪২৯

  • || ২৯ সফর ১৪৪৪

পিরোজপুর সংবাদ

কুমড়ার বীজের উপকারিতা

পিরোজপুর সংবাদ

প্রকাশিত: ১৭ জুলাই ২০২২  

এমন অনেক খাবার আছে যা আমরা অবহেলা করে ফেলে দেই, কিন্তু সেগুলো আমাদের শরীরের জন্য ভীষণ উপকারী। নাস্তায় তেলে ভাজা কিংবা স্ন্যাকস জাতীয় খাবারের বদলে রাখতে পারেন কুমড়া বীজ। ভাজাভুজি জাতীয় খাবারে পুষ্টি তেমন মেলে না বললেই চলে। তবে কুমড়া বীজ প্রচুর পুষ্টিগুণে ভরা। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস প্রকাশ করেছে প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় কুমড়া বীজ রাখা কেন জরুরি-

>>> কুমড়ার বীজে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ক্যালশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম আর জিঙ্ক যা অস্টিওপোরেসিসের মতো হাড়ের সমস্যা কমাতে সাহায্য করে।

>>> খাবার হজম করতেও দারুণ কার্যকরী এই বীজ। এতে থাকা উচ্চ ফাইবার হজমশক্তি উন্নত করে।

>>> কুমড়ার বীজে রয়েছে ট্রিপটোফ্যান নামক অ্যামিনো অ্যাসিড। যা অক্সিটোসিন হরমোন ক্ষরণে সহায়তা করে। একই সঙ্গে মেলাটোনিন আর সেরোটোনিন নিঃসৃত হতে সহায়তা করে। যা অবসাদ কাটিয়ে শরীর, মন তরতাজা করে তুলতে সাহায্য করে। শুক্রাণুর সংখ্যা বৃদ্ধি করতেও এটি দারুণ উপকারী।

>>> কুমড়ার বীজে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড, সালফার, জিঙ্ক, ভিটামিন এ, বি আর কে, যা চুল উজ্জ্বল ও ঘন করে তুলতেও সহায়তা করে। এতে রয়েছে কিউকারবিটিন নামক অ্যামিনো অ্যাসিড যা চুল বাড়তে সাহায্য করে।

>>> কুমড়ার বীজে রয়েছে সেরাটোনিন নামের রাসায়নিক উপাদান। যা স্নায়ুতন্ত্রের চাপ কমিয়ে অনিদ্রার সমস্যা কাটাতে সাহায্য করে।

কীভাবে খাবেন কুমড়ার বীজ?
এই বীজ রান্নায় ব্যবহার করতে পারেন। তবে তার আগে বেটে নিতে হবে। এ ছাড়াও এটি অল্প সেঁকে বা কাঁচা খেলেও উপকার পেতে পারেন।